• banlag
  • newspaper-active
  • epaper

শুক্রবার, ০৬ ডিসেম্বর ২০১৯, ২১ অগ্রহায়ণ ১৪২৬, ৮ রবিউস সানি ১৪৪১

সেন্টমার্টিনে বিজিবি টহল বিওপি স্থাপন

সংবাদ :
  • প্রতিনিধি, টেকনাফ (কক্সবাজার)

| ঢাকা , সোমবার, ০৮ এপ্রিল ২০১৯

image

গতকাল থেকে সেন্টমার্টিন দ্বীপের নিরাপত্তায় বিজিবি সদস্যদের টহল -সংবাদ

মায়ানমারের সীমান্ত ঘেঁষা কক্সবাজারের টেকনাফের সেন্টমার্টিন দ্বীপে বর্ডার গার্ড বাংলাদেশের (বিজিবি) একটি নতুন বিওপি স্থাপন করা হয়েছে। রোববার সকাল থেকে দ্বীপের বিভিন্ন জায়গায় বিজিবির টহল শুরু হয়েছে। দেশের সার্বভৌমত্ব রক্ষায় এ দ্বীপে বিজিবির টহল জোরদার করা হয়েছে। রোববার সকালে টেকনাফের দমদমিয়া পর্যটক জাহাজ ঘাট থেকে কেয়ারী ডাইন ক্রুস করে বিজিবির সদস্যরা সেন্টমার্টিনে যান। পরে সেখান থেকে অস্থায়ী কার্যালয়ে মালামাল ও সরঞ্জাম নিয়ে যাওয়া হয়।

মূলত সীমান্ত সুরক্ষায় ও চোরাচালনা রোধে নতুন করে বিজিবির এই বিওপি স্থাপনা করা হয়েছে বলে নিশ্চিত করেছেন টেকনাফের ২ ব্যাটালিয়ান বিজিবির ভারপ্রাপ্ত অধিনায়ক লে. কর্নেল সরকার মোহাম্মদ মোস্তাফিজুর রহমান।

তিনি জানান, বাংলাদেশ স্বাধীন হওয়ার পর থেকে ১৯৯৭ সাল পর্যন্ত এ দ্বীপে বিজিবির কার্যক্রম ছিল। এরপর দ্বীপে কোস্টগার্ড কার্যক্রম চালিয়ে আসছিল। রোববার থেকে কোস্টগার্ডের পাশাপাশি বিজিবিও সেখানে নিয়মিত টহল দিবে। সীমান্তের সুরক্ষা ও চোরাচালান রোধে সরকার দ্বীপে বিজিবির একটি বিওপি স্থাপনার উদ্যোগ নিয়েছেন। ওই বিওপিটি একজন কোম্পানি কমান্ডারের নেতৃত্বে চলবে। এই বিওপিতে শতাধিক বিজিবি সদস্য থাকবে। তবে সেখানে কোন ভারী অস্ত্র নেয়া হয়নি।

বিজিবি সূত্রে জানায়, সম্প্রতি সেন্টমার্টিন দ্বীপে বিভিন্ন সময়ে রোহিঙ্গা আটক করেছে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী। ওই এলাকায় দস্যুতার ঘটনাও ঘটছে। এ দ্বীপে পুলিশ ও কোস্টগার্ডের পৃথক ফাঁড়িও রয়েছে। এরপরও সেন্টমার্টিনের নিরাপত্তায় বিজিবি মোতায়েন করা হয়েছে।

দ্বীপের বাসিন্দা নূর মোহাম্মদ বলেন, রোববার একটি পর্যটকবাহি জাহাজে করে শতাধিক বিজিবির সদস্য টেকনাফ থেকে সেন্টমার্টিনে আসেন।

সেন্টমার্টিন ইউপি চেয়ারম্যান নূর আহাম্মদ বলেন, সেন্টমার্টিন দ্বীপে নতুন করে বিজিবির একটি অস্থায়ী বিওপি স্থাপন করা হয়েছে। রোববার শতাধিক বিজিবি সদস্য দ্বীপে পৌঁছেন। তারা নিয়মিত টহল করে যাবেন। এর ফলে দ্বীপে পর্যটকের পাশাপাশি স্থানীয় মানুষের নিরাপত্তা আরও জোরদার হবে।

টেকনাফ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোহাম্মদ রবিউল হাসান বলেন, সেন্টমার্টিন দ্বীপে নতুন করে বিজিবি কাজ শুরু করেছেন। সেখানে আগে থেকে কোস্টগার্ড ও পুলিশ কাজ করছিল। এখন পুরোদমে সীমান্তের সুরক্ষায় কাজ করবেন বিজিবি। এর ফলে দ্বীপের নিরাপত্তা আরও বৃদ্ধি পাবে বলে জানায়।