• banlag
  • newspaper-active
  • epaper

শনিবার, ০৭ ডিসেম্বর ২০১৯, ২২ অগ্রহায়ণ ১৪২৬, ৯ রবিউস সানি ১৪৪১

স্ত্রী শারমিনের দাবি

সম্রাটের কোন সম্পদ নেই, শুধু জুয়ার নেশা

    সংবাদ :
  • নিজস্ব বার্তা পরিবেশক
  • | ঢাকা , সোমবার, ০৭ অক্টোবর ২০১৯

যুবলীগ ঢাকা মহানগর দক্ষিণের বহিষ্কৃত সভাপতি ইসমাইল হোসেন চৌধুরী ওরফে সম্রাটের স্ত্রী শারমিন চৌধুরী দাবি করেছেন, তার স্বামীর কোন সম্পদ নেই। তবে তিনি জুয়ার নেশা ছিল এবং তা ক্যাসিনোর টাকা দিয়ে। গতকাল বিকেলে রাজধানীর মহাখালীতে সম্রাটের বাসায় র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়নের (র‌্যাব) অভিযান চলাকালে সাংবাদিকদের তিনি এ দাবি করেন। ক্যাসিনো সম্রাট হিসেবে পরিচিত ইসমাইল হোসেন চৌধুরী ওরফে সম্রাটকে শনিবার রাতে কুমিল্লার চৌদ্দগ্রাম থেকে গ্রেফতার করে র‌্যাব। পরে ঢাকা মহানগর দক্ষিণ যুবলীগের সভাপতি পদ থেকে বহিষ্কৃত হন তিনি। এরপর সম্রাটকে নিয়েই রাজধানীর কাকরাইলে তার কার্যালয়ে অভিযান চালানো হয়। অভিযান চলে সম্রাটের শান্তিনগর ও মহাখালীর বাসাতেও। বিকেলে অভিযানের সময় সম্রাটের দ্বিতীয় স্ত্রী শারমিন চৌধুরী ছাড়া আর কেউ সেখানে ছিলেন না।

শারমিন চৌধুরী বলেন, ১৯ বছর আগে তাদের বিয়ে হলেও দুই বছর ধরে তারা আলাদা জীবন-যাপন করেন। তাদের একটি ছেলে সন্তান রয়েছে। সম্রাট রোববার সকালে গ্রেফতার হয়েছেন-এ খবর তিনি জানেন বলেও সাংবাদিকদের জানান। শারমিনের দাবি, আমি জানতাম সে যুবলীগের একজন ভালো নেতা। সেটা উত্তর ও দক্ষিণের সবাই জানেন। ও যে এত বড় একটা ক্যাসিনো চালাতো, সেটা আমি জানতাম না। ক্যাসিনো চালিয়ে যা আয় করে তা দলের জন্য খরচ করে। আর বাকি কিছু থাকলে তা সিঙ্গাপুরে ও দেশে জুয়া খেলে। ক্যাসিনো চালিয়ে দল চালানোর বিষয়ে এক প্রশ্নের উত্তরে শারমিন চৌধুরী বলেন, এমন জনপ্রিয়তা আর কোন নেতার আছে বলেন? উত্তরেও তো নিখিল নামের একজন আছেন, তার তো এত জনপ্রিয়তা নাই।

চলমান ক্যাসিনোবিরোধী অভিযান চালানোয় প্রধানমন্ত্রীকে ধন্যবাদ জানিয়ে শারমিন চৌধুরী বলেন, এই অভিযান চালানোর উদ্যোগ আরও আগে নিলে ভালো হতো।

সম্রাট এখানে আসত কি না- জানতে চাইলে শারমিন চৌধুরী বলেন, পলাতক থাকার পর থেকে আমার সঙ্গে যোগাযোগ করেনি। ওর ভয় ছিল আমি বলে দেব। গত ১৮ সেপ্টেম্বর ঢাকার মতিঝিলের ক্লাবপাড়ায় র‌্যাবের অভিযানে অবৈধ ক্যাসিনো চলার বিষয়টি প্রকাশ্যে আসার পর থেকে আলোচনায় ছিলেন যুবলীগ নেতা সম্রাট। অভিযোগ রযেছে, সম্রাটের অত্যন্ত ঘনিষ্ঠ হিসেবে পরিচিত যুবলীগ নেতা আরমানও দীর্ঘদিন ধরে ক্যাসিনোর কারবারে জড়িত।