• banlag
  • newspaper-active
  • epaper

শনিবার, ১৭ এপ্রিল ২০২১, ৪ বৈশাখ ১৪২৮ ৪ রমজান ১৪৪২

রাস্তায় দাঁড়িয়ে মাকে খুঁজছে শিশু তুবা

সংবাদ :
  • নিজস্ব বার্তা পরিবেশক

| ঢাকা , বুধবার, ২৪ জুলাই ২০১৯

image

গণপিটুনিতে নিহত তাসলিমা বেগম রেনুর হত্যাকারীদের গ্রেফতার ও শাস্তির দাবিতে লক্ষ্মীপুরের রায়পুরে মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়েছে। গতকাল দুপুরে রায়পুর থানার সামনে এ মানববন্ধনের আয়োজন করে স্থানীয়রা। এতে নিহত রেনুর শিশুকন্যা তুবাসহ পরিবারের লোকজন ও আত্মীয়স্বজনরা উপস্থিত ছিলেন। এ সময় রাস্তায় দাঁড়িয়ে কাঁদছিল তুবা। মানববন্ধনে উপস্থিত লোকজনের মাঝে মাকে খুঁজছিল সে।

মানববন্ধন চলাকালে সমাবেশে বক্তব্য রাখেন রায়পুর উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান মারুফ বিন জাকারিয়া, রায়পুর পৌর যুবলীগের আহ্বায়ক তানজিদ কামাল, পৌর স্বেচ্ছাসেবক লীগের আহ্বায়ক জহির পাটওয়ারী প্রমুখ। মানববন্ধনে বক্তারা বলেন, ছেলেধরা গুজবে দেশের বিভিন্ন স্থানে মানসিক প্রতিবন্ধী ও নিরীহ মানুষকে হত্যা করা হচ্ছে। যারা এসব হত্যাকান্ডের সঙ্গে জড়িত তাদের বিচারের আওতায় এনে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দিতে হবে। যারা গুজব ছড়িয়ে রেনুকে হত্যা করেছে তাদের বিচারের দাবিতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার হস্তক্ষেপ কামনা করেন তারা।

রেনু হত্যার ঘটনায় দুজন রিমান্ডে

এদিকে বাড্ডায় গণপিটুনিতে তাসলিমা বেগম রেনু হত্যার ঘটনায় গ্রেফতার দুজনের চারদিন করে রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন আদালত। গতকাল ঢাকা মহানগর হাকিম শহিদুল ইসলাম এ আদেশ দেন। আদালতে সংশ্লিষ্ট থানার সাধারণ নিবন্ধন কর্মকর্তা লিয়াকত আলী এ তথ্য জানান। রিমান্ড মঞ্জুর হওয়া দুই আসামি হলো, আবুল কালাম, কালাম হোসেন। আদালত সূত্র জানায়, মঙ্গলবার দুপুরে মামলার তদন্ত কর্মকর্তা পরিদর্শক আবদুর রাজ্জাক সুষ্ঠু তদন্তের স্বার্থে ও অজ্ঞাত আসামিদের খুঁজে বের করতে দুই আসামিকে আদালতে হাজির করে ১০ দিনের রিমান্ড আবেদন করেন। শুনানি শেষে আদালত আসামিদের রিমান্ড মঞ্জুর করেন। উল্লেখ্য, গত শনিবার সকালে রাজধানীর উত্তর বাড্ডায় ছেলেধরা সন্দেহে তাসলিমা বেগম রেনুকে পিটিয়ে হত্যা করে বিক্ষুব্ধ জনতা। ওইদিন সকাল পৌনে ৯টার দিকে উত্তর বাড্ডা কাঁচাবাজারের সড়কে এ ঘটনা ঘটে। নিহত রেনুর স্বজনদের দাবি, মেয়েকে স্কুলে ভর্তি করাবে বলে খোঁজ নিতে বাড্ডার একটি স্কুলে গিয়েছিলেন রেনু এবং সেখানে গণপিটুনির শিকার হন।