• banlag
  • newspaper-active
  • epaper

সোমবার, ২১ সেপ্টেম্বর ২০২০, ০১ মহররম ১৪৪২, ০৩ আশ্বিন ১৪২৭

মুদ্রণ ব্যবসায়ী সিন্ডিকেটের লাগাম টানতে

মাধ্যমিক ও অন্য স্তরে পাঠ্যবই মুদ্রণে ‘ই-জিপি’ টেন্ডার

যে কোন মূল্যে সিদ্ধান্ত কার্যকরের নির্দেশ শিক্ষা সচিবের

সংবাদ :
  • রাকিব উদ্দিন

| ঢাকা , বুধবার, ১৫ জানুয়ারী ২০২০

অসাধু মুদ্রাকরদের (প্রিন্টার্স) সিন্ডিকেটের লাগাম টানতে এবার মাধ্যমিক ও অন্যান্য শিক্ষা স্তরের পাঠ্যবই ছাপতে ‘ই-জিপি’ (ই-গভর্নমেন্ট প্রকিউরমেন্ট) অর্থাৎ অনলাইনে দরপত্র আহ্বানের সিদ্ধান্ত নিয়েছে শিক্ষা মন্ত্রণালয়। ২০২১ শিক্ষাবর্ষের পাঠ্যপুস্তক মুদ্রণ কার্যক্রম ‘ই-জিপি’ প্রক্রিয়ায় বাস্তবায়ন হচ্ছে; খুব শীঘ্রই প্রথমবারের মতো এই দরপত্র প্রক্রিয়া শুরু করতে যাচ্ছে জাতীয় শিক্ষাক্রম ও পাঠ্যপুস্তক বোর্ড (এনসিটিবি)।

যদিও মুদ্রাকরদের একটি প্রভাবশালী সিন্ডিকেট সরকারের এই সিদ্ধান্তকে নস্যাৎ করার চেষ্টা করছে বলে জানিয়েছেন এনসিটিবি’র কর্মকর্তারা। তবে শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি ও উপমন্ত্রী মহিবুল হাসান চৌধুরীর নির্দেশনা অনুযায়ী ‘ই-জিপি’ টেন্ডার আহ্বানের বিষয়ে সর্বাত্মক প্রস্তুতি নিয়েছে এনসিটিবি।

এদিকে শিক্ষা সচিব মাহবুব হোসেনের সভাপতিত্বে গতকাল বিকেলে সচিবালয়ে অনুষ্ঠিত এক সভায় ‘পাঠ্যপুস্তক’ মুদ্রণে ‘ই-জিপি’ টেন্ডার আহ্বানের বিষয়ে চূড়ান্ত নির্দেশনা দেয়া হয় এনসিটিবিকে। যেকোন মূল্যে ‘ই-জিপি’ টেন্ডার প্রক্রিয়া কার্যকরের নির্দেশনা দিয়েছেন শিক্ষা সচিব। সভা শেষে এনসিটিবি’র একাধিক কর্মকর্তা সংবাদকে সরকারের এ গুরুত্বপূর্ণ সিদ্ধান্তের কথা জানান।

জানা গেছে, অসাধু মুদ্রাকরদের টেন্ডার বাণিজ্যের লাগাম টানতে ২০১১ সাল থেকে প্রাথমিক শিক্ষা স্তরের পাঠ্যবই মুদ্রণে আন্তর্জাতিক দরপত্র আহ্বান করে আসছে সরকার। এতে সুফলও মিলছে। বিদেশি প্রতিষ্ঠান খুব একটা কাজ না পেলেও দেশের অতি মুনাফালোভী ব্যবসায়ীদের সিন্ডিকেট অনেকটাই দুর্বল হয়েছে। বই মুদ্রণকাজ প্রতিযোগিতাপূর্ণ হয়েছে। সরকারের মোটা অঙ্কের টাকাও সাশ্রয় হচ্ছে। স্থানীয় মুদ্রণশিল্পের সম্প্রসারণও ঘটছে। এ অভিজ্ঞতা থেকেই মাধ্যমিক ও অন্যান্য স্তরের পাঠ্যবই ছাপতে ‘ই-জিপি’ দরপত্র প্রক্রিয়া চালুর সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে।

ই-জিপি প্রক্রিয়ায় দরপত্র হলে অসাধু সিন্ডিকেট ভেঙে যাবে কিনা জানতে চাইলে এনসিটিবি’র সদস্য (টেক্সট) প্রফেসর ফরহাদুল ইসলাম সংবাদকে বলেন, ‘এখন আর কেউ সিন্ডিকেট করতে পারবে না। এনসিটিবিকেও জিম্মি করা যাবে না। কারণ দরপত্র প্রক্রিয়ায় সবার অংশগ্রহণ নিশ্চিত করা হচ্ছে। মূলত যাদের অনেকগুলো ওয়েব মেশিন আছে এবং যাদের একটিমাত্র ওয়েব মেশিন আছে উভয়ই সমান সুযোগ পাবে। অর্থাৎ সিন্ডিকেট ভেঙে যাবে। কাজেও অধিকতর স্বচ্ছতা নিশ্চিত হবে।’

এনসিটিবি সূত্র জানায়, ২০২০ শিক্ষাবর্ষের প্রায় ৩৫ কোটি পাঠ্যবই মুদ্রণ করা হয়েছে ৩২০টি লটে। আর ই-জিপি দরপত্রে ওই লট কমিয়ে ২৫০টি নির্ধারণ করা হয়েছে। মুদ্রণ ব্যবসায়ীদের সুবিধার্থে লট কমানো হয়েছে। এতে যাদের ‘ওয়েব মেশিন’ রয়েছে-এমন প্রায় সব ব্যবসায়ীই কম-বেশি পাঠ্যপুস্তক ছাপার কাজ পেতে পারেন।

এদিকে ই-জিপি টেন্ডারের বিষয়ে ইতোমধ্যে পরিকল্পনা মন্ত্রণালয়ের ‘সেন্ট্রাল প্রকিউরমেন্ট টেকনিক্যাল ইউনিট’ (সিপিটিইউ) থেকে এনসিটিবি’র ৬০ জন কর্মকর্তা-কর্মচারীকে প্রশিক্ষণ দেয়া হয়েছে জানিয়ে এনসিটিবি বিতরণ নিয়ন্ত্রক প্রফেসর জিয়াউল হক সংবাদকে বলেন, ‘শুধুমাত্র বই ছাপা নয়, কাজ কেনা থেকে শুরু করে এনসিটিবি’র সব কাজেই এখন থেকে ই-জিপি দরপত্র আহ্বান করা হবে।

তিনি আরও জানান, ‘ই-জিপি টেন্ডারের বিষয়ে শতভাগ প্রস্তুতি সম্পন্ন করেছে এনসিটিবি। এমনকি পেশাদার প্রিন্টারদেরও (মুদ্রাকর) এনসিটিবি’তে আমন্ত্রণ জানিয়ে এ বিষয়ে প্রশিক্ষণ দেয়া হয়েছে। এখন এ বিষয়ে আর কারও আপত্তি থাকার কথা নয়।’

গত ১ জানুয়ারি থেকে চলতি ২০২০ শিক্ষাবর্ষে প্রাক-প্রাথমিক স্তর থেকে দশম শ্রেণী পর্যন্ত প্রায় চার কোটি ৩০ লাখ শিক্ষার্থীর কাছে মোট ৩৫ কোটি ৩১ লাখ ৪৪ হাজার ৫৫৪ কপি বই বিতরণ করেছে এনসিটিবি।

সাধারণত প্রতিবছরের জানুয়ারিতে নতুন বই বিতরণের পর থেকেই পরবর্তী শিক্ষাবর্ষের বই ছাপার প্রক্রিয়া শুরু করতে হয় এনসিটিবিকে। আগস্ট থেকে বই ছাপার কাজ পুরোদমে শুরু হয়ে নভেম্বর ও ডিসেম্বর নাগাদ বই ছাপা ও বিতরণ কাজ শেষ হয়। প্রায় প্রতিবছরই শিক্ষার্থীর সংখ্যা বাড়তে থাকায় বইয়ের চাহিদাও বাড়ছে। এনসিটিবিকেও বিশাল এই চাপ সামলাতে হচ্ছে।

কিন্তু বই মুদ্রণে প্রচলিত দরপত্র পদ্ধতি অবলম্বন করায় অসাধু ব্যবসায়ীরা দীর্ঘদিন ধরেই এনসিটিবিকে জিম্মি করে কখনও প্রাক্কলিত মূল্যের চেয়ে কম মূল্যে বেশি কাজ বাগাচ্ছেন। কখনও সঙ্গবদ্ধভাবে উচ্চমূল্যে দরপত্র আহ্বান করছেন। পুরো কাজটিই নির্ধারিত সময়ে সম্পন্ন করতে হওয়ায় এনসিটিবি’কেও কখনও কখনও সিন্ডিকেটের সঙ্গে আপোষ করতে হয়। এবার ই-জিপি দরপত্র আহ্বান করা হলে ওই সিন্ডিকেট ভেঙে যেতে পারে বলে ধারণা করছেন এনসিটিবি কর্মকর্তারা।

  • গভীর খাদে পুঁজিবাজার

    নেমে গেছে ভিত্তি পয়েন্টের নিচে ম কোথায় গিয়ে থামবে জানা নেই কারও, বিনিয়োগকারীদের বিক্ষোভ

    newsimage

    ভিত্তি পয়েন্ট ৪০৫৫- এর নিচে নেমে গেছে দেশের বড় পুঁজিবাজার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জের (ডিএসই) সূচক। গতকাল বড় পতনের মধ্য দিয়ে বাজারের

  • ক্ষণগণনা : আর ৬১ দিন

    ‘মুজিববর্ষ’ উদযাপনে নানা আয়োজনের মধ্যে খেলাধুলায় প্রথম প্রতিযোগিতার যাত্রা শুরু হচ্ছে আজ। মুজিববর্ষে ক্রীড়ায় প্রায় ১০০টি

  • স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের নির্দেশনা দুর্নীতি সহায়ক

    টিআইবি

    স্বাস্থ্যসেবা সম্পর্কে গবেষণা, জরিপ ও অন্য কোন তথ্য ও সংবাদ সংগ্রহের জন্য কর্তৃপক্ষের অনুমতি গ্রহণ, বিনা অনুমতিতে স্থিরচিত্র বা ভিডিওচিত্র

  • ঢাকা সিটি নির্বাচন

    ভোট ৩০ জানুয়ারি

    আগামী ৩০ জানুয়ারিই অনুষ্ঠিত হবে ঢাকার দুই সিটি করপোরেশনের নির্বাচন। এ সংক্রান্ত করা রিট আবেদনটি খারিজ করে দিয়ে

  • ঢাকা সিটি নির্বাচন

    বিএনপির নজর মেয়র পদে আ’লীগ কাউন্সিলর প্রার্থীরা ব্যস্ত বিদ্রোহী ঠেকাতে

    ঢাকার দুই (উত্তর ও দক্ষিণ) সিটি নির্বাচনে প্রচারণা জমে উঠেছে। মেয়র পদে আওয়ামী লীগ ও বিএনপির চার প্রার্থী সমানতালে ভোটের মাঠ চষে বেড়াচ্ছেন। দুই দলের সমর্থিত কাউন্সিলররাও দিন-রাত

  • পূর্ণাঙ্গ সফরে পাকিস্তান যাচ্ছেন টাইগাররা

    খেলবেন ২টি টেস্ট, ১টি ওডিআই ও ৩টি টি-২০

    অনেক নাটকীয়তার অবসান ঘটিয়ে শেষ পর্যন্ত পাকিস্তান সফরে যাচ্ছে বাংলাদেশ ক্রিকেট দল। পাকিস্তানের সঙ্গে পূর্ণাঙ্গ সিরিজই খেলবে

  • পদ্মা সেতুতে বসল ২১তম স্প্যান

    এ মাসেই আরও ২টি বসানো হবে

    পদ্মা সেতুতে বসানো হয়েছে ২১ তম স্প্যান (ইস্পাতের কাঠামো)। গতকাল সেতুর ৩২ ও ৩৩ নম্বর পিয়ারে এই স্প্যানটি বসানো হয়। এর মাধ্যমের

  • প্রশ্নফাঁস-জালিয়াতি

    ঢাবির ৬৭ শিক্ষার্থী স্থায়ী বহিষ্কার

    ১২১ শিক্ষার্থীর বিরুদ্ধে ব্যবস্থা

    ভর্তি পরীক্ষার প্রশ্নপত্র ফাঁস ও জালিয়াতির সঙ্গে জড়িত থাকা, অস্ত্র ও মাদকের সঙ্গে সংশ্লিষ্টতা, ছিনতাইসহ বিভিন্ন অভিযোগের প্রমাণ পাওয়ায়

  • মন্ত্রীর এপিএস আরিফুরের বিরুদ্ধে লুটপাটের অভিযোগ

    সাঈদ খোকনের এপিএস কুদ্দুসকে দুদকে তলব

    দুর্নীতি ও অনিয়মের মাধ্যমে শতকোটি টাকারও বেশি লুটপাটের অভিযোগে স্বাস্থ্যমন্ত্রীর এপিএস আরিফুর রহমান শেখকে তলব করেছে দুর্নীতি

  • খালেদার বিদেশে চিকিৎসা

    অনেক দিন সাজা খাটার পর সরকার বিবেচনা করতে পারে

    অ্যাটর্নি জেনারেল

    দুটি মামলায় কারাবন্দী বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার সাজা স্থগিত করে তাকে দেশে বা বিদেশে চিকিৎসার সুযোগ দিতে সরকারের

  • প্রচার-প্রচারণায় প্রার্থীরা

    প্রতিশ্রুতি পাচ্ছেন, হিসাব কষছেন ভোটাররা

    আসন্ন ঢাকা সিটি করপোরেশন নির্বাচনে উন্নত ও আধুনিক ঢাকা গড়ার প্রতিশ্রুতি নিয়ে প্রচারণা চালাচ্ছেন আওয়ামী লীগে সমর্থিত দুই মেয়র প্রার্থী।

  • মানবতাবিরোধী অপরাধ

    সৈয়দ কায়সারের মৃত্যুদণ্ড বহাল

    মুক্তিযুদ্ধকালীন সময়ে সংঘটিত হত্যা, গণহত্যা ও ধর্ষণসহ মানবতাবিরোধী অপরাধের দায়ে যুদ্ধাপরাধী সৈয়দ মো. কায়সারকে মৃত্যুদ-ের আদেশ

  • নোয়াখালী থেকে অপহরণ করে

    গৃহবধূকে আটকে রেখে এক মাস ধরে গণধর্ষণ

    চট্টগ্রাম থেকে উদ্ধার

    নোয়াখালীর সোনাইমুড়ি থেকে অপহ্নত গৃহবধূকে চট্টগ্রাম থেকে উদ্ধার হয়েছে। সোনাইমুড়ি থানা পুলিশ গত রোববার গোপন খবরের