• banlag
  • newspaper-active
  • epaper

সোমবার, ২২ জুলাই ২০১৯, ৭ শ্রাবন ১৪২৫, ১৮ জিলকদ ১৪৪০

মন্ত্রী হচ্ছেন ইমরান নতুন প্রতিমন্ত্রী ইন্দিরা শপথ কাল

    সংবাদ :
  • নিজস্ব বার্তা পরিবেশক
  • | ঢাকা , শুক্রবার, ১২ জুলাই ২০১৯

image

মন্ত্রিসভা সম্প্রসারণ হচ্ছে। এর মধ্যে নতুন করে একজন প্রতিমন্ত্রী নিয়োগ পাচ্ছেন। আর একজন প্রতিমন্ত্রী পূর্ণ মন্ত্রী হিসেবে পদোন্নতি পাচ্ছেন।

আগামীকাল তাদের শপথ অনুষ্ঠিত হবে বলে সাংবাদিকদের জানিয়েছেন মন্ত্রিপরিষদ সচিব মোহাম্মদ শফিউল আলম। তিনি গতকাল সচিবালয়ে ‘জেলা প্রশাসক সম্মেলন-২০১৯’ নিয়ে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে এক প্রশ্নের জবাবে এ তথ্য জানান। মন্ত্রিসভা সম্প্রসারিত হচ্ছে কি না, এ ব্যাপারে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের প্রস্তুতি রয়েছে কি না, সাংবাদিকরা জানতে চাইলে মন্ত্রিপরিষদ সচিব বলেন ‘আমরা প্রস্তুত, শনিবার (১৩ জুলাই) সন্ধ্যা সাড়ে ৭টায় বঙ্গভবনে মন্ত্রিসভার নতুন সদস্যদের শপথ অনুষ্ঠিত হবে।’ তবে নতুন মন্ত্রী হিসেবে কতজন শপথ নেবেন সে বিষয়ে কিছু জানাননি মন্ত্রিপরিষদ সচিব।

মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ সূত্র জানায়, প্রবাসীকল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থানবিষয়ক প্রতিমন্ত্রী ইমরান আহমদকে পদোন্নতি দিয়ে মন্ত্রী করা হচ্ছে। আর নতুন প্রতিমন্ত্রী হিসেবে শপথ নিতে যাচ্ছেন আওয়ামী লীগের মহিলাবিষয়ক সম্পাদক ও সংসদ সদস্য ফজিলাতুন নেসা ইন্দিরা। তিনি মহিলা ও শিশুবিষয়ক মন্ত্রণালয়ের দায়িত্ব পেতে পারেন। বর্তমানে এ মন্ত্রণালয়ে কোন মন্ত্রী বা প্রতিমন্ত্রী নেই।

সর্বশেষ গত ১৯ মে মন্ত্রিসভা কিছুটা পুনর্বিন্যাস করা হয়। ওই সময় স্বাস্থ্য ও পরিবারকল্যাণ প্রতিমন্ত্রী ডা. মুরাদ হাসানকে তথ্য মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী করা হয়। ওই সময় ডাক, টেলিযোগাযোগ ও তথ্যপ্রযুক্তি মন্ত্রণালয়ের মন্ত্রী ও প্রতিমন্ত্রীর দায়িত্ব ভাগ করে দেয়া হয়। তাদের মধ্যে মন্ত্রী মোস্তাফা জব্বারকে একই মন্ত্রণালয়ের অধীন ডাক ও টেলিযোগাযোগ বিভাগের মন্ত্রীর দায়িত্ব দেয়া হয়। আর এ মন্ত্রণালয়ের তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগের দায়িত্ব দেয়া হয় প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলককে।

এছাড়া ১৯ মে স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রণালয়ের মন্ত্রী ও প্রতিমন্ত্রী দায়িত্ব ভাগ করে দেয়া হয়। তাদের মধ্যে ‘স্থানীয় সরকার বিভাগে’র মন্ত্রী করা হয় তাজুল ইসলামকে। একই মন্ত্রণালয়ের পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় বিভাগের প্রতিমন্ত্রীর দায়িত্ব দেয়া হয় স্বপন ভট্টাচার্যকে।

২০১৮ সালের ৩০ ডিসেম্বর একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে নিরঙ্কুশ বিজয়ের পর গত ৭ জানুয়ারি টানা তৃতীয়বারের মতো সরকার গঠন করে আওয়ামী লীগ। ৪৬ সদস্যের এই মন্ত্রিসভায় ২৪ মন্ত্রী, ১৯ প্রতিমন্ত্রী ও তিনজন উপমন্ত্রী রয়েছেন। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার অধীনে ছয় মন্ত্রণালয় রাখা হয়।

দেশের প্রায় সব রাজনৈতিক দলের অংশগ্রহণের মধ্য দিয়ে গত ৩০ ডিসেম্বর অনুষ্ঠিত হয় একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন। এই নির্বাচনে ২৯৮ আসনের মধ্যে ২৮৮ আসনে জয় পায় ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগ নেতৃত্বাধীন জোট। আওয়ামী লীগ এককভাবে বিজয়ী হয় ২৫৭টি আসনে। অন্যদিকে বিএনপি ও তাদের জোট ‘জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট’ জয় পায় মাত্র সাতটি আসনে।