• banlag
  • newspaper-active
  • epaper

শনিবার, ২৪ আগস্ট ২০১৯, ৯ ভাদ্র ১৪২৫, ২২ জিলহজ ১৪৪০

বগুড়ায় বিএনপি নেতা শাহীন খুন

সংবাদ :
  • প্রতিনিধি, বগুড়া

| ঢাকা , মঙ্গলবার, ১৬ এপ্রিল ২০১৯

দুর্বৃত্তদের ছুরিকাঘাতে বগুড়া সদর থানা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক ও পরিবহন ব্যবসায়ী অ্যাডভোকেট মাহবুব আলম শাহীন খুন হয়েছেন। রোববার রাত পৌনে ১১টার দিকে বগুড়ার নিশিন্দারা উপশহর এলাকায় এই খুনের ঘটনা ঘটে।

প্রত্যক্ষদর্শী জানায়, অ্যাডভোকেট শাহীন রোববার রাত সাড়ে ১০টার পর উপশহর বাজার এলাকায় একটি জিমনেস্টিক সেন্টার থেকে বের হন। এ সময় মোটরসাইকেলে আসা দুর্বৃত্তরা তাকে ছুরিকাঘাত করে পালিয়ে যায়। মারাত্মক আহত অবস্থায় স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে বগুড়া মোহাম্মদ আলী হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন। বগুড়ার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার সনাতন চক্রবর্তী ও সদর থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) মঞ্জুরুল হক ভুঞা এ তথ্য নিশ্চিত করে বলেন, কে বা কারা এবং কী কারণে তাকে ছুরিকাঘাত করে খুন করেছে, তাৎক্ষণিক সেটি জানা যায়নি। তবে খুনের সঙ্গে জড়িতদের চিহ্নিত করে গ্রেফতার করতে ঘটনার পর থেকেই তৎপরতা চালানো হচ্ছে। লাশ বগুড়া শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মর্গে রাখা হয়েছে। এ ঘটনার সংবাদ পেয়ে রাতেই জেলা বিএনপির সভাপতি ভিপি সাইফুল ইসলামসহ দলীয় নেতাকর্মী সহকর্মীকে দেখতে বগুড়া শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল যান। সেখানে নেতাকর্মীদের ভিড় জমে যায়।

এদিকে দুর্বৃত্তের হাতে নিহত বিএনপি নেতা অ্যাডভোকেট মাহাবুব আলম শাহীন হত্যার প্রতিবাদে ৫ দিনের শোক ও প্রতিবাদ কর্মসূচি ঘোষণা করেছে জেলা বিএনপি। ঘোষিত কর্মসূচি অনুযায়ী সোমবার সকাল থেকেই কালো ব্যাচ ধারণ করেন দলের নেতাকর্মীরা। এছাড়া দলীয় কার্যালয়ের সামনে কালো পতাকা উত্তোলন ও দলীয় পতাকা অর্ধনমিত রাখা হয়েছে। এছাড়া আজ মঙ্গলবার দলের পক্ষ থেকে শোকর‌্যালি ও পরদিন প্রতিবাদ সমাবেশ করা হবে বলে দলীয় সূত্রে জানা গেছে।

বেলা আনুমানিক দেড়টায় ময়নাতদন্ত শেষে লাশ পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।

ঘটনার পর পরই পুলিশের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন। পুলিশের পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, ঘটনাটি তদন্ত করে দেখা হচ্ছে। স্থানীয় একটি সূত্র বলেছে, মোটর মালিক গ্রুপের জেরে এ ঘটনা ঘটতে পারে বলে জানা গেছে। তবে পুলিশ এ বিষয় স্বীকার না করলেও বলেছে, সম্ভাব্য সব কারণ খতিয়ে দেখা হচ্ছে।

পুলিশ ঘটনাস্থলের আশপাশের বাড়িঘর ও স্থাপনার সিসি ক্যামেরার ভিডিও ফুটেজ সংগ্রহ করেছে। তবে আনুষ্ঠানিকভাবে পুলিশ কাউকে গ্রেফতার বা আটকের কথা স্বীকার করেনি। এছাড়া নিহত বিএনপি নেতা শাহীনের মরদেহ ময়নাতদন্তের পর সোমবার বিকাল ৪টায় বগুড়া বিএনপি কার্যালয়ের সামনে প্রথম দফায় জানাজা অনুষ্ঠিত হয়। পরে বাদ আসর তার নিজ বাড়ি ধরমপুরে দ্বিতীয় দফায় জানাজার পর পারিবারিক গোরস্তানে তার লাশ দাফন করা হয়।

অন্যদিকে নিহত মাহবুব আলম বগুড়া জেলা অ্যাডভোকেট বারের সদস্য হওয়ায় সোমবার আদালতপাড়ায় ফুলকোর্ট রেফারেন্স অনুষ্ঠিত হয়েছে।

বগুড়া সদর থানার ওসি বদিউজ্জামান জানান, এ ঘটনায় এখনও কোন মামলা দায়ের হয়নি। মামলা হলে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।