• banlag
  • newspaper-active
  • epaper

সোমবার, ০৬ এপ্রিল ২০২০, ২৩ চৈত্র ১৪২৬, ১১ শাবান ১৪৪১

পাঁচ সংসদীয় উপনির্বাচনে আ’লীগের মনোনয়ন পেতে চান ৭৮ জন

ঢাকা ১০-এর প্রার্থী হতে সাঈদ খোকনের চেষ্টা

    সংবাদ :
  • নিজস্ব বার্তা পরিবেশক
  • | ঢাকা , শনিবার, ১৫ ফেব্রুয়ারী ২০২০

আসন্ন পাঁচটি সংসদীয় উপনির্বাচনে আওয়ামী লীগের মনোনয়ন চান ৭৮ জন প্রার্থী। যেখানে সাঈদ খোকন ও ব্যবসায়ী নেতা মহিউদ্দিনসহ অনেক আলোচিত ব্যক্তি রয়েছেন। আজ এ প্রার্থীদের সাক্ষাৎকার নেয়া হবে। এরপর নৌকা প্রতীকের প্রার্থীর নাম ঘোষণা করা হবে। ঢাকা-১০, বগুড়া-১ বাগেরহাট-৪, যশোর-৬ এবং গাইবান্ধা-৩ আসনে উপনির্বাচন হবে।

আওয়ামী লীগ সূত্র জানায়, গতকাল ধানমন্ডিতে আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনার রাজনৈতিক কার্যালয় থেকে দলীয় আবেদনপত্র সংগ্রহ এবং জমা দেয়ার আজ ছিল। গত শনিবার উপনির্বাচনে মনোনয়ন ফরম বিতরণ শুরু হয়। ১৫ ফেব্রুয়ারি সন্ধ্যা ৭টায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সরকারি বাসভবন গণভবনে প্রার্থীদের সাক্ষাৎকার অনুষ্ঠিত হবে। তিন আসনে দলের প্রার্থী চূড়ান্ত হবে।

এছাড়া চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশনের নির্বাচনে অংশ নিতে মোট ২০ জন মেয়র প্রার্থী আওয়ামী লীগের মনোনয়ন ফরম ক্রয় করেন। আর কাউন্সিলর পদে প্রার্থী হয়েছেন ৪০৫ জন। সংসদ সদস্য পদে আবেদন ফরমের মূল্য ৩০ হাজার টাকা, মেয়র পদে ২৫ হাজার ও কাউন্সিলর পদে ১০ হাজার টাকা রাখা হচ্ছে। সদ্য সমাপ্ত ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশন নির্বাচনে মেয়র পদে দলীয় মনোনয়নের দৌড়ে শেখ ফজলে নূর তাপসের কাছে হেরে যাওয়া সাঈদ খোকন এবার তার ছেড়ে দেয়া সংসদীয় আসনে আওয়ামী লীগের মনোনয়ন চান। ঢাকা দক্ষিণের বিদায়ী মেয়র খোকন বলেন, আমি মনোনয়ন ফরম তুলে জমা দিয়েছি। এখন সিদ্ধান্ত দলের।

ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের মেয়র পদে নৌকার প্রার্থী হয়ে আবারও ভোটে দাঁড়াতে চেয়েছিলেন সাঈদ খোকন। কিন্তু দল তাকে মনোনয়ন না দিয়ে ঢাকা-১০ আসনের সংসদ সদস্য তাপসকে প্রার্থী করে। ১ ফেব্রুয়ারির নির্বাচনে তাপস জয়ীও হয়েছেন। এখন তার ছেড়ে দেয়া ঢাকা-১০ আসনে ২১ মার্চ ভোট হবে।

খোকন ছাড়াও ব্যবসায়ীদের শীর্ষ সংগঠন এফবিসিসিআইয়ের সাবেক সভাপতি ও গার্মেন্টস শিল্প মালিক সফিউল ইসলাম মহিউদ্দিন এবং ভাসানটেক থানা আওয়ামী লীগের সহসভাপতি ইয়াদ আলী ফকিরও নৌকার প্রার্থী হতে ফরম কিনেছেন।

বাগেরহাট-৪ ও গাইবান্ধা-৩ আসনের উপনির্বাচনও একই দিনে ভোট হবে। তিন আসনের ১৯ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত মনোনয়নপত্র দাখিল করা যাবে। ২৩ ফেব্রুয়ারি বাছাই শেষে ২৯ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত প্রার্থিতা প্রত্যাহারের সুযোগ থাকবে। ১ মার্চ প্রতীক বরাদ্দের পর শুরু হবে প্রচার।

বাগেরহাট-৪ আসনের সংসদ সদস্য সাবেক প্রতিমন্ত্রী মো. মোজাম্মেল হোসেন ১০ জানুয়ারি এবং গাইবান্ধা-৩ আসনের সাংসদ মো. ইউনুস আলী সরকার গতবছর ২৭ ডিম্বের মারা যান। ওই দুটিসহ মোট তিনটি শূন্য আসনে ভোটের তফসিল একসঙ্গে দিয়েছে নির্বাচন কমিশন।