• banlag
  • newspaper-active
  • epaper

শুক্রবার, ০৬ ডিসেম্বর ২০১৯, ২১ অগ্রহায়ণ ১৪২৬, ৮ রবিউস সানি ১৪৪১

রিফাত হত্যা

পলাতক ৮ আসামির মালপত্র ক্রোকের নির্দেশ

সংবাদ :
  • প্রতিনিধি, বরগুনা

| ঢাকা , শুক্রবার, ০৪ অক্টোবর ২০১৯

বরগুনার রিফাত শরীফ হত্যা মামলার পলাতক আট আসামির মালপত্র ক্রোকের নির্দেশ দিয়েছেন আদালত। গতকাল সকাল সাড়ে ১০টার দিকে বরগুনার সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতের বিচারক মোহাম্মদ সিরাজুল ইসলাম গাজী এ আদেশ দিয়েছেন।

রিফাত শরীফ হত্যা মামলার প্রাপ্তবয়স্ক অভিযুক্তদের নিয়ে দাখিল করা অভিযোগ পত্রের প্রধান অভিযুক্ত রাকিবুল হাসান রিফাত ফরাজী ও চার নম্বর অভিযুক্ত রেজওয়ান আলী খান ওরফে টিকটক হৃদয়ের জামিন আবেদন নামঞ্জুর করেছেন আদালত। গত ৩০ সেপ্টেম্বর রিশান ফরাজী, মো. অলি উল্লাহ অলি, চন্দন সরকার, মো. তানভির হোসেন, নাজমুল হাসান, রাতুল সকদার জয়সহ ৬জনের জামিন চেয়ে সংশ্লিষ্ট আদালতে জামিন আবেদন করা হলে তা বাতিল করা হয়েছিল। বৃহস্পতিবার পর্যন্ত পুলিশ গ্রেফতার করতে না পারায় এবং আত্মসমর্পণও না করায় পর্যায়ক্রমিকভাবে যেসব আসামির মালামাল ক্রোকের নির্দেশ দেয়া হয়েছে তারা হলেন- প্রাপ্তবয়স্ক তিন নম্বর আসামি মোহাইমিনুল ইসলাম সিফাত, ছয় নম্বর আসামি মো. মুসা, অপ্রাপ্তবয়স্ক দুই নম্বর আসামি রাকিবুল হাসান রিফাত হাওলাদার, তিন নম্বর আসামি আবু আবদুল্লাহ রায়হান, ছয় নম্বর আসামি মো. নাইম, নয় নম্বর আসামি রাকিবুল হাসান নিয়ামত, ১০ নম্বর আসামি সাইয়েদ মারুফ বিল্লাহ ওরফে মহিব্বুলাহ ও ১২ নম্বর আসামি প্রিন্স মোল্লা।

বাদীপক্ষের আইনজীবী অ্যাডভোকেট মুজিবুল হক কিসলু জানিয়েছেন, রিফাত হত্যা মামলার ধার্য তারিখ থাকায় বৃহস্পতিবার বরগুনা জেলা কারাগারে থাকা সাত আসামিকে সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে হাজির করে পুলিশ। এছাড়াও মামলায় অভিযুক্ত হওয়ার পর জামিনে থাকা আয়শা সিদ্দিকা মিন্নি ও আরিয়ান হসেন শ্রাবণ আদালতে হাজির হয়েছিলেন। তবে আদালতের নির্দেশ থাকায় সাংবাদিকদের সঙ্গে কোন কথা বলেননি। তবে মিন্নির বাবা জানিয়েছেন তারা মিন্নির চিকিৎসার জন্য এবং রিফাত শরীফ হত্যায় পুলিশের অগ্রহণযোগ্য অভিযোগপত্রের বিষয় তার আইনজীবীর সঙ্গে দেখা করেছেন। যেখানেই গেছেন সেখানেই সহযোগিতা পেয়েছেন। তারা রিফাত হত্যার বিষয় আইনি লড়াই চালিয়ে যাবেন। গতকাল আদালতের কার্যক্রম শেষ হলে কারাগারে থাকা আসামিদের কারাগারে পাঠানো হয়েছে। আগামী ১৬ অক্টোবর এ মামলার পরবর্তী তারিখ নির্ধারণ করেছেন আদালত।

এদিকে গত ২৬ জুন সকাল সাড়ে ১০টার দিকে বরগুনা সরকারি কলেজের সামনে রিফাত শরীফকে প্রকাশ্যে রামদা দিয়ে কুপিয়ে আহত করা হয়। বরিশাল শেরে বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হলে ওইদিন বিকেলে চিকিৎসাধীন অবস্থায় রিফাত শরীফের মৃত্যু হয়।