• banlag
  • newspaper-active
  • epaper

বৃহস্পতিবার, ০১ অক্টোবর ২০২০, ১৩ সফর ১৪৪২, ১৬ আশ্বিন ১৪২৭

না’গঞ্জে আক্রান্ত হাজার ছাড়ালো মৃত্যু ৪৬ জন

সংবাদ :
  • প্রতিনিধি, নারায়ণগঞ্জ

| ঢাকা , রোববার, ০৩ মে ২০২০

করোনার এপিসেন্টার নারায়ণগঞ্জে আক্রান্তের সংখ্যা হাজার ছাড়িয়েছে। গত চব্বিশ ঘণ্টায় আক্রান্তের তালিকায় যুক্ত হয়েছেন ৬৪ জন। গতকাল জেলা স্বাস্থ্য বিভাগের দেয়া সর্বশেষ তথ্যমতে, এখন পর্যন্ত জেলায় করোনাভাইরাস পজেটিভ শনাক্ত হয়েছেন ১০০১ জন। আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন ৪৬ জন এবং এখন পর্যন্ত সুস্থ হয়েছেন মাত্র ৪২ জন।

রাজধানী ঢাকার পর নারায়ণগঞ্জ জেলায় করোনার প্রাদুর্ভাব সবচেয়ে বেশি। পরিস্থিতি বিবেচনায় গত ৮ এপ্রিল থেকে অনির্দিষ্টকালের জন্য জেলায় লকডাউন চলছে। তাতেও কমছে না সংক্রমণ। সবচেয়ে বেশি আক্রান্ত রয়েছে নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশন এলাকায়। মোট আক্রান্তের ৬১ দশমিক ৬৩ শতাংশ সিটি এলাকার বাসিন্দা। করোনার হটস্পট বলে চিহ্নিত হয়েছে সিটি এলাকা।

জেলা স্বাস্থ্য বিভাগের তথ্যমতে, নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশন (শহর, সিদ্ধিরগঞ্জ ও কদমরসুল অঞ্চল) এলাকায় করোনাভাইরাস পজেটিভ শনাক্ত হয়েছেন ৬১৭ জন। গত চব্বিশ ঘণ্টায় সিটি এলাকার ৩০ জন করোনা পজেটিভ শনাক্ত হয়েছেন। সর্বশেষ করোনায় মারা যাওয়া জেলার চারজনই সিটি এলাকার বাসিন্দা। এখন পর্যন্ত সিটিতে মারা গেছেন ৩২। সিটি এলাকার পর সবচেয়ে বেশি আক্রান্ত পাওয়া গেছে সদর উপজেলায়। এখন পর্যন্ত ২৯০ জন আক্রান্ত ও ১০ জন মারা গেছেন এই উপজেলায়। বন্দর উপজেলায় আক্রান্তের সংখ্যা ২২, মৃত্যু হয়েছে একজনের। সোনারগাঁয়ে ৩২ জন করোনা পজেটিভ শনাক্ত এবং ২ জন মারা গেছেন। রূপগঞ্জে এখন পর্যন্ত ১৩ জন আক্রান্ত হয়েছেন আর মারা গেছেন ১ জন। আড়াইহাজারে আক্রান্ত হয়েছেন ২৭ জন তবে এখন পর্যন্ত কেউ মারা যায়নি।

জেলা স্বাস্থ্য বিভাগ ও নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশনের স্বাস্থ্যকর্মীরা বাড়ি বাড়ি গিয়ে নমুনা সংগ্রহ করছেন। এছাড়া করোনা রোগীদের জন্য নির্ধারিত নারায়ণগঞ্জ ৩শ’ শয্যা হাসপাতালেও নমুনা সংগ্রহ করা হয়। বেসরকারি জেকেজি হেলথ কেয়ার নমুনা সংগ্রহ করলেও তাদের তথ্য জেলা স্বাস্থ্য বিভাগে নেই।

গতকাল সিভিল সার্জন কার্যালয় প্রকাশিত তথ্যানুযায়ী, গত চব্বিশ ঘণ্টায় ৮৮ জনের নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে। এখন পর্যন্ত ৩১৬৮ জনের নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে। সবচেয়ে বেশি ১৬৮৪ জনের নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে সদর উপজেলা থেকে। সিটি করপোরেশন এলাকা থেকে ৭১৯, বন্দর উপজেলায় ১৯৮, আড়াইহাজারে ২৭০, সোনারগাঁয়ে ১৪০, রূপগঞ্জে ১৫৭ জনের নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে। এই পর্যন্ত সুস্থ হয়ে বাসায় ফেরা ৪২ জনের মধ্যে সিটি করপোরেশন এলাকার ২৮ জন, সদর উপজেলার ৯ জন, রূপগঞ্জের ১ জন, সোনারগাঁয়ে ১ জন ও আড়াইহাজারের ৩ জন। জেলা করোনা ফোকাল পারসন সদর উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডা. জাহিদুল ইসলাম বলেন, জেলায় করোনা আক্রান্তের সংখ্যা বাড়ছে। নারায়ণগঞ্জে আক্রান্তদের মধ্যে চিকিৎসক-নার্সসহ জেলার স্বাস্থ্যসেবার সঙ্গে যুক্ত ৮০ জন রয়েছেন। জেলা প্রশাসনেরও কয়েকজন কর্মকর্তা আক্রান্ত হয়েছেন। এছাড়া জেলায় কর্মরত অর্ধশতাধিক র‌্যাব-পুলিশের সদস্যও করোনা পজেটিভ হয়ে আইসোলেশনে আছে।