• banlag
  • newspaper-active
  • epaper

শুক্রবার, ৩০ অক্টোবর ২০২০, ১৪ কার্তিক ১৪২৭, ১২ রবিউল ‍আউয়াল ১৪৪২

ঢাকা-৫ ও নওগাঁ ৬ উপনির্বাচন

দুই আসনেই নৌকার জয়

পুনর্নির্বাচন ও ইসির পদত্যাগ দাবি সালাউদ্দিনের নওগাঁয় বিএনপি প্রার্থীর ভোট বর্জন ভোট সুষ্ঠু হয়েছে : সিইসি

সংবাদ :
  • নিজস্ব বার্তা পরিবেশক ও প্রতিনিধি নওগাঁ

| ঢাকা , রোববার, ১৮ অক্টোবর ২০২০

image

বড় ধরনের বিশৃঙ্খলা ছাড়াই শান্তিপূর্ণ পরিবেশে গতকাল ঢাকা-৫ এবং নওগাঁ-৬ সংসদীয় আসনের উপনির্বাচনের ভোট গ্রহণ হয়েছে। দুটি আসনেই নৌকা প্রতীকে আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থীরা জয়লাভ করেছেন। আবহাওয়া ভালো থাকলেও করোনা পরিস্থিতিসহ নানা বিবেচনায় কেন্দ্রগুলোতে ভোটার উপস্থিতি খুবই কম ছিল। ভোট গ্রহণে দায়িত্বপ্রাপ্ত কর্মকর্তাদের অলস বসে থাকতে দেখা গেছে। বিভিন্ন কেন্দ্রের আশপাশে সকাল থেকেই ছিল ক্ষমতাসীন দলের নেতাকর্মী ও সমর্থকদের জটলা। তবে বিএনপিসহ অন্যান্য দলের কর্মী- সমর্থকদের দৃশ্যমান উপস্থিতির অভাব পরিলক্ষিত হয়েছে।

আওয়ামী লীগের প্রার্থীরা ভোট সুষ্ঠু হয়েছে দাবি করলেও বিএনপির প্রার্থীরা ভোটকেন্দ্র থেকে তাদের এজেন্টদের বের করে দেয়া, ভোটারদের নানাভাবে হয়রানি করার অভিযোগ তুলেছেন। ঢাকা-৫ আসনে বিএনপির প্রার্থী সালাহ উদ্দিন আহমেদ শেষ পর্যন্ত মাঠে থাকলেও সন্ধ্যায় নিজ নির্বাচনী এলাকার প্রধান কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলন করে উপনির্বাচনে অনিয়মের অভিযোগ এনে সরকার ও নির্বাচন কমিশনের পদত্যাগ এবং ফলাফল বর্জন করে পুনর্নির্বাচনের দাবি জানান। পাশাপাশি অনিয়মের প্রতিবাদে রোববার (১৮ অক্টোবর) দুপুর ২টায় নির্বাচনী এলাকায় মানববন্ধন কর্মসূচির ঘোষণা দেন। এদিকে নওগাঁ-৬ আসনের ধানের শীষ প্রতীকে বিএনপির প্রার্থী শেখ মো. রেজাউল ইসলাম বিকেল সাড়ে ৩টার দিকে আত্রাইয়ে নিজের প্রধান নির্বাচনী কার্যালয়ে ভোটে নানা অনিয়মের অভিযোগ এনে ভোট বর্জনের ঘোষণা দেন।

রাতে ভোট গণনা শেষে ঢাকা-৫ আসনের উপনির্বাচনে আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী (নৌকা) কাজী মনিরুল ইসলাম মনুকে বেসরকারিভাবে নির্বাচিত ঘোষণা করেন সংশ্লিষ্ট রিটানিং কর্মকর্তা। মনিরুল পেয়েছেন ০০০০০০ ভোট। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থী বিএনপির সালাহউদ্দিন আহমেদ পেয়েছেন ০০০০০০০ ভোট। এ আসনে ০০ দশমিক ০ শতাংশ ভোট পড়েছে বলে জানান রিটানিং কর্মকর্তা।

এদিকে সন্ধ্যার পর ভোট গণনা শেষে নওগাঁ-৬ আসনের উপনির্বাচনে আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী ( নৌকা) আনোয়ার হোসেন হেলালকে বেসরকারিভাবে নির্বাচিত ঘোষণা করেন সংশ্লিষ্ট রিটানিং কর্মকর্তা। হেলাল পেয়েছেন ১ লাখ ৫ হাজার ৪৬৭ ভোট। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থী বিএনপির শেখ রেজাউল ইসলাম (ধানের শীষ) পেয়েছেন ৪ হাজার ৫১৭ ভোট। এ আসনে ৩৬ দশমিক ৪ শতাংশ ভোট পড়েছে বলে জানান রিটানিং কর্মকর্তা।

নির্বাচন সুষ্ঠু হয়েছে- সিইসি : রাজধানীর ডেমরা, যাত্রাবাড়ী ও কদমতলীর আংশিক এলাকা নিয়ে গঠিত ঢাকা-৫ এবং রানীনগর ও আত্রাই উপজেলা নিয়ে গঠিত নওগাঁ-৬ আসনে গতকাল সকাল ৯টা থেকে বিরতিহীনভাবে বিকেল ৫টা পর্যন্ত ইলেক্ট্রনিক ভোটিং মেশিনে (ইভিএম) ভোট নেয়া হয়। উপনির্বাচনে ভোটগ্রহণ শেষ হওয়ার আগ মুহূর্তে আগারগাঁওয়ের নির্বাচন ভবনে সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে প্রধান নির্বাচন কমিশনার (সিইসি) কেএম নূরুল হুদা বলেন, নির্বাচন সুষ্ঠু হয়েছে। এই উপনির্বাচনের ভোটগ্রহণে কোথাও কোনো অসুবিধা হয়নি। তারা কোন অভিযোগ পাননি। সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে সিইসি বলেন, জাতীয় নির্বাচনে সারাদেশে ভোট হয়। উপনির্বাচনে ভোটারদের আগ্রহ কম থাকে। এই উপনির্বাচনের মাধ্যমে সরকার পরিবর্তনের সুযোগ নেই। এ জন্য হয়তো ভোটারদের মধ্য তেমন আগ্রহ নেই। পাশাপাশি করোনার বিষয়ও আছে।

ঢাকা-৫ আসনের ভোটকেন্দ্রগুলোতে ভোটের শুরু থেকে শেষ পর্যন্ত পুরোটা সময় ভোটারের অভাব পরিলক্ষিত হয়েছে। সরেজমিন এ আসনের বিভিন্ন কেন্দ্র ও আশপাশের এলাকার বিভিন্ন শ্রেণীপেশার মানুষের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, করোনা সংক্রমণ বিবেচনায় অনেকেই ভোটকেন্দ্রে যাওয়া থেকে বিরত থাকাই উপযুক্ত বলে মনে করছেন। আবার কিছু লোক বলছেন, এ আসন আওয়ামী লীগের ছিল, তারাই পাবে, কষ্ট করে ভোট দিতে যাওয়ার দরকার কি?

মহিলা ভোটকেন্দ্র মাতুয়াইল বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ে স্থাপিত ৫টি ভোটকক্ষে মোট ভোটার ছিলেন ২ হাজার ১৪৫ জন। সকাল থেকে দুপুর পর্যন্ত এখানে মহিলা ভোটারদের দীর্ঘ লাইন চোখে পড়েনি। কেন্দ্রের বাইরে ৪টি স্থানে ভোটার স্লিপ নিয়ে ভোটারের অপেক্ষায় ছিলেন ক্ষমতাসীন দলের কর্মীরা। বিএনপি ও জাতীয় পার্টির পোস্টার ব্যানার চোখে পড়লেও তাদের কর্মীদের দেখা মেলেনি।

সকালে যাত্রাবাড়ীর আইডিয়াল স্কুল অ্যান্ড কলেজ কেন্দ্রে থেকে বের হয়ে আওয়ামী লীগ প্রার্থী কাজী মনিরুল ইসলাম মনু। আমুলিয়া মাদ্রাসার কেন্দ্র পরিদর্শন করেন। সেখানে তিনি সাংবাদিকদের বলেন, ভোট অত্যন্ত সুষ্ঠু হচ্ছে। ভোটার উপস্থিতি কিছুটা কম হলেও এটা আস্তে আস্তে বাড়বে। নজিরবিহীন নির্বাচন হবে। জনগণের রায়ে আমি নির্বাচিত হব। তার ভোটগ্রহণ হয়নি বলে খবর ছড়িয়ে পড়ার বিষয়ে মনিরুল নিজের আঙ্গুলে ভোটের চিহ্ন সাংবাদিকদের দেখিয়ে বলেন, এই যে দেখেন আমি ভোট দিয়েছি।

বিএনপির এজেন্টদের কেন্দ্র থেকে বের করে দেয়া হয়েছে- বিএনপি প্রার্থী সালাহ উদ্দিন আহমেদ এমন অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে কাজী মনিরুল বলেন, বিএনপির সালাহউদ্দিন আহমেদ শুরু থেকে নালিস দিয়ে যাচ্ছেন, তার কোন ব্যানার- ফেস্টুন নেই, নেই কোন প্রচারণা, তিনি নালিস পার্টির লোক শুধু নালিস করেই যাচ্ছেন।

ঢাকার আঞ্চলিক নির্বাচন কর্মকর্তা ও রিটার্নিং অফিসার জিএম সাহতাব উদ্দিন দুপুরে সাংবাদিকদের বলেন, সুষ্ঠুভাবে ভোট চলছে। আমি বেশ কয়েকটি কেন্দ্র পরিদর্শন করেছি। উৎসবমুখর পরিবেশ রয়েছে। আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর পর্যাপ্ত সদস্য রয়েছেন। আশা করি, শান্তিপূর্ণভাবেই এ আসনে ভোট গ্রহণ সম্পন্ন হবে।

সংবাদের নওগাঁ প্রতিনিধি কাজী কামাল হোসেন জানান, নওগাঁ-৬ (রানীনগর ও আত্রাই) আসনের উপনির্বাচনে ভোটার উপস্থিতি ছিল খুবই কম। এরমধ্যে বিএনপির প্রার্থীর এজেন্টদের কেন্দ্র থেকে বের করে দেয়া ও ভোটারদের ভোট দানে বাধা দেয়ার অভিযোগ পাওয়া গেছে। নির্বাচনে অনিয়মের অভিযোগে ভোট বর্জনের ঘোষণা দেন বিএনপির প্রার্থী শেখ রেজাউল ইসলাম।

দুপুর ১২টায় আত্রাই উপজেলার ভবানীপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে গিয়ে দেখা যায়, কেন্দ্রটিতে ভোটারদের কোন সারি নেই। কিছুক্ষণ পরপর একজন-দুইজন করে ভোটার ভোট দিয়ে যাচ্ছেন। ওই কেন্দ্রে মোট ভোটার ২ হাজার ৩৭৮ জন। দুপুর ১২টা পর্যন্ত ভোট পড়েছে ২৮০টি। যা মোট ভোটারের ১২ শতাংশের কিছু কম। ওই কেন্দ্রে ছয়টি বুথের কোনটিতে বিএনপির এজেন্ট পাওয়া যায়নি।

ওই কেন্দ্রের বাইরে আবদুর কাদের নামে এক ব্যক্তি দাবি করেন তিনি বিএনপি প্রার্থীর এজেন্ট ছিলেন। তিনি দাবি করেন, সকাল ৯টায় তিনিসহ আরও পাঁচজন ওই কেন্দ্রের বুথে (ভোটকক্ষে) গিয়ে বসেন। বুথে ঢোকার ১০-১২ মিনিট পর আওয়ামী প্রার্থীর লোকজন ভয়-ভীতি দেখিয়ে আমাদের বুথ থেকে বের করে দেন।

প্রিজাইডিং অফিসার মোজাম্মেল হক জানান, সকালে বিএনপির এজেন্টরা তালিকা দিয়ে ভোটকক্ষে বসেছিলেন। কিন্তু কিছুক্ষণ পর তারা নিজেরাই চলে যান। তাদের জোর বের করে দেয়ার কোন অভিযোগ পাইনি। সকাল থেকে শান্তিপূর্ণ পরিবেশে ভোটাররা ভোট দিয়েছেন।

বিকেল ৩টায় আত্রাই উপজেলার আহসনগঞ্জ উচ্চ বিদ্যালয় কেন্দ্রে গিয়ে দেখা যায়, ওই কেন্দ্রের ৮টি বুথে বিকেল ৩টা পর্যন্ত ভোট পড়েছেন ৬৫৮টি। ওই কেন্দ্রে মোট ভোটার ৩ হাজার ৪৫৬ জন। এই হিসেবে বিকেল ৩টা পর্যন্ত কেন্দ্রটিতে ভোট পড়েছে ১৯ শতাংশ।

বিভিন্ন কেন্দ্রে সাধারণ ভোটারদের ভোট দানে বাধা দেয়ার অভিযোগ পাওয়া গেছে। রানীনগর পাইলট উচ্চবিদ্যালয় কেন্দ্রের ভোটার শফিকুল ইসলাম, জুয়েল রানা, মোকাব্বের সহ ছয়-সাতজন ভোটার জানান, তারা ভোট দেয়ার জন্য কেন্দ্রের ভেতর ঢুকতে চাইলে আওয়ামী লীগের কর্মী-সমর্থকেরা তাদের ঢুকতে বাধা দেয়। ভোট না দিয়েই তারা ফিরে আসেন।

নওগাঁয় বিএনপি প্রার্থীর ভোট বর্জন : বিকেল সাড়ে ৩টায় আত্রাই উপজেলার সদরের নাহার গার্ডেন মার্কেটে সংবাদ সম্মেলন করে নানা অনিয়মের অভিযোগে এই নির্বাচনকে প্রহসনের নির্বাচন উল্লেখ করে ভোট বর্জনের ঘোষণা দেন বিএনপি প্রার্থী শেখ রেজাউল ইসলাম। তিনি বলেন, নির্বাচনের আগে দুই তিন দিন ধরে বিএনপির নেতাকর্মীদের মারধর করে ভোটের মাঠ থেকে সরিয়ে দেয়ার চেষ্টা করেছে আওয়ামী প্রার্থীর কর্মী-সমর্থকেরা। গতকাল ভোটের দিন সকাল থেকেই ভোটকেন্দ্রগুলোতে বিএনপির সমর্থক ও সাধারণ ভোটারদের ভোট দিতে বাধা দেয় আওয়ামী প্রার্থীর লোকজন। তিনি আরও বলেন, ১০৪টি ভোটকেন্দ্রের প্রত্যেকটি বুথে ধানের শীষের এজেন্ট দেয়া হয়েছিল। ৯টার সময় ভোট শুরুর পর পরেই আওয়ামী লীগের কর্মী-সমর্থকরা বিএনপির এজেন্টদের মারধর করে বের করে দেয়।

উল্লেখ্য, ঢাকা-৫ : ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের ৪৮, ৪৯, ৫০, ৬০, ৬১, ৬২, ৬৩, ৬৪, ৬৫, ৬৬, ৬৭, ৬৮, ৬৯ ও ৭০ নম্বর ওয়ার্ড নিয়ে গঠিত এ আসন আওয়ামী লীগের সংসদ সদস্য হাবিবুর রহমান মোল্লার মৃত্যুতে শূন্য হয়। এখানে ভোটার : ৪ লাখ ৭১ হাজার ১২৯ জন। ভোটকেন্দ্র ১৮৭, ভোটকক্ষ ৮৬৪টি। প্রার্থী : আওয়ামী লীগের কাজী মনিরুল ইসলাম, বিএনপির সালাহউদ্দিন আহমেদ, জাতীয় পার্টির মীর আবদুস সবুর, ন্যাশনাল পিপলস পার্টির আরিফুর রহমান এবং বাংলাদেশ কংগ্রেসের আনছার রহমান শিকদার

নওগাঁ-৬ : রানীনগর উপজেলা ও আত্রাই উপজেলা নিয়ে গঠিত এ আসন আওয়ামী লীগের সংসদ সদস্য ইসরাফিল আলমের মৃত্যুতে শূন্য হয়। এখনে ভোটার ৩ লাখ ৬ হাজার ৭২৫ জন। ভোটকেন্দ্রে- ১০৪, ভোটকক্ষ ৭২১। প্রার্থী : আওয়ামী লীগের মো. আনোয়ার হোসেন হেলাল, বিএনপির শেখ মো. রেজাউল ইসলাম, এনপিপির মো. খন্দকার ইন্তেখাব আলম।