• banlag
  • newspaper-active
  • epaper

বুধবার, ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২০, ০৪ মহররম ১৪৪২, ০৫ আশ্বিন ১৪২৭

করোনায়

ডাক্তার নার্সসহ ১৬শ’ স্বাস্থ্যকর্মী ১৮১ পুলিশ আক্রান্ত

    সংবাদ :
  • নিজস্ব বার্তা পরিবেশক
  • | ঢাকা , শনিবার, ২৩ মে ২০২০

জীবনের ঝুঁকি নিয়ে ডাক্তার ও নার্সরা করোনা রোগীদের চিকিৎসা করতে গিয়ে নিজেরাই আক্রান্ত হয়েছে। গতকাল পর্যন্ত ৭৯৩ জন ডাক্তার ও ৮০০ নার্স এবং স্বাস্থ্যকর্মী মিলে মোট আক্রান্ত হয়েছে ১৬০০ জন। এরমধ্যে ৩ জন ডাক্তার মারা গেছেন। আর সুস্থ্য হয়ে উঠেছেন ২৩০ জন ডাক্তার ও স্বাস্থ্যকর্মী। ডক্টর ফাউন্ডেশন অব বাংলাদেশে (বিডিএফ) চেয়ারম্যান ডা. শাহেদ রফি পাভেল গতকাল সন্ধায় সংবাদকে এ তথ্য জানিয়েছেন। এ সংখ্যা আরো বাড়তে পারে বলে অনেকেই মন্তব্য করেন।

জানা গেছে, গত ৮ মার্চ দেশে প্রথম করোনা রোগী শনাক্ত হয়। এরপর এক দুই করে প্রতিদিন রোগীর সংখ্যা বাড়ছে। সঙ্গে বাড়ছে মৃত্যু। সংক্রামণব্যাধিতে আক্রান্ত এ সব করোনা রোগীর চিকিৎসা করতে হয় ডাক্তারদের। কিন্তু প্রথম দিকে ডাক্তারদের সুরক্ষার পর্যাপ্ত অভাব ছিল। নিম্নমানের মাস্ক, পিপিই সংকটসহ নানা সমস্যার মধ্যেও ডাক্তার ও নার্স ও স্বাস্থ্য কর্মীরা জীবনের ঝুঁকি নিয়ে করোনা রোগীর চিকিৎসা করছেন। আবার অনেক রোগী নিজেই জানেনা সে করোনায় রোগে আক্রান্ত। তার চিকিৎসা করতে গিয়েও ডাক্তার, নার্স আক্রান্ত হয়েছে। এমনকি ৩ জন ডাক্তার ইতোমধ্যে মারা গেছেন। এখনও বহু ডাক্তার নার্স ও হাসপাতালের কর্মকর্তা আক্রান্ত আছে। প্রতিদিন এ সংখ্যা বেড়েই চলছে। রাজধানসহ সারাদেশের সরকারি হাসপাতাল, স্বাস্থ্য কেন্দ্র ও জেলা সদর হাসপাতাল গুলোতে করোনা রোগীর চিকিৎসা চলছে। রোগী প্রায় সময় তথ্য গোপন রাখায় খোদ ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল, মিটফোর্ড হাসপাতাল, বঙ্গবন্ধু মেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় হাসপাতাল, মুগদা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালসহ সারাদেশের অনেক হাসপাতালে করোনা রোগীর চিকিৎসা করতে গিয়ে ডাক্তার নিজেই আক্রান্ত হয়েছে।

এরপর বিশেষজ্ঞদের মতে, এখন ডাক্তারদের স্বাস্থ্য সুরক্ষার পিপিই ও উন্নত কিছু মাস্ক পাওয়া যাচ্ছে। যার কারণে আক্রান্তের সংখ্যা আগের চেয়ে কমছে বলেও বিশেষজ্ঞরা মনে করেন।