• banlag
  • newspaper-active
  • epaper

শনিবার, ২৬ মে ২০১৮, ১২ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৫, ৯ রমজান ১৪৩৯

খালেদার স্বাস্থ্য পরীক্ষার অনুমতি পাননি ৭ চিকিৎসক

    সংবাদ :
  • নিজস্ব বার্তা পরিবেশক
  • | ঢাকা , বৃহস্পতিবার, ১৫ ফেব্রুয়ারী ২০১৮

বিএনপি চেয়ারপার্সন খালেদা জিয়ার স্বাস্থ্য পরীক্ষার অনুমতি পাননি তার ব্যক্তিগত চিকিৎসকরা। জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায় ৫ বছরের সাজাপ্রাপ্ত সাবেক এ প্রধানমন্ত্রী বর্তমান পুরাতন ঢাকা কেন্দ্রীয় কারাগারে বন্দী আছেন। গতকাল দুপুরে তারা কারাফটকের কাছে পৌঁছলে পুলিশ তাদের আটকে দেয়। পরে তারা কারা অধিদফতরে গিয়ে জেল সুপার বরাবর আবেদন করেন। কিন্তু কারাগারের ভিতরে খালেদা জিয়ার স্বাস্থ্য পরীক্ষা ও চিকিৎসার সব ব্যবস্থা রয়েছে জানিয়ে তাদের আবেদন নাকচ করে দেয় কারা কর্তৃপক্ষ দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে অনুমতি না নিয়েই পুরান ঢাকার নাজিম উদ্দিন রোডের পুরনো কেন্দ্রীয় কারাগারের মূল ফটকে পৌঁছান ৭ চিকিৎসক। তারা হলেন- অধ্যাপক ডা. সিরাজ উদ্দিন আহমেদ, অধ্যাপক ডা. সাহাব উদ্দিন, অধ্যাপক ডা. মো. আবদুল কুদ্দুস, অধ্যাপক ডা. এস এম রফিকুল ইসলাম বাচ্চু, সহযোগী অধ্যাপক ডা. সাইফুল ইসলাম সেলিম, ডা. মো. ফাওয়াজ হোসেন শুভ ও ডা. মনোয়ারুল কাদির বিটু।

খালেদা জিয়ার ব্যক্তিগত চিকিৎসক টিমের সদস্য অধ্যাপক ডা. মো. আবদুল কুদ্দুস বলেন, কারা অধিদফতর বরাবর খালেদা জিয়ার স্বাস্থ্য পরীক্ষার আবেদন করেছি। কারা মহাপরিদর্শক ও অতিরিক্ত কারা মহাপরিদর্শকের সঙ্গেও কথা বলেছি। তারা অনুমতি দিতে অপারগতা জানিয়েছেন। ডা. আবদুল কুদ্দুস আরও বলেন, আমরা কারা কর্তৃপক্ষকে বলেছি, সারাদেশের মানুষ যেমন খালেদা জিয়ার স্বাস্থ্য নিয়ে উদ্বিগ্ন আমরাও তেমনি উদ্বিগ্ন।

তাই আমরা ব্যক্তিগত চিকিৎসকরা তার স্বাস্থ্য পরীক্ষার জন্য এসেছি। একটি নির্জন কারাগারে খালেদা জিয়াকে রাখা হয়েছে। এমন অবস্থায় তার যদি কিছু হয় এর দায় কারা কর্তৃপক্ষকে নিতে হবে। সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে তিনি আরও বলেন, খালেদা জিয়ার স্বাস্থ্য ও চিকিৎসার বিষয়ে কারা কর্তৃপক্ষের কাছে জানতে চেয়েছি। তারা বলেছেন, খালেদার চিকিৎসায় যা প্রয়োজন তার সব ব্যবস্থা আছে। যদি প্রয়োজন হয় তবে আপনাদেরও শরণাপন্ন হব।

কারা কর্তৃপক্ষের এক ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা বলেন, খালেদা জিয়ার ব্যক্তিগত চিকিৎসকদের একটি আবেদনপত্র হাতে পেয়েছি। জেলকোড অনুযায়ী তার সঙ্গে দেখা করার জন্য ৭ দিনে একটি আবেদন গ্রহণযোগ্য হবে। এ সপ্তাহে খালেদা জিয়ার পরিবারের সদস্যরা দেখা করে গেছেন। সুতরাং চিকিৎসকরা এ সপ্তাহে অনুমতি পাবেন না। তিনি আরও বলেন, কারাগারের ভিতরে খালেদা জিয়ার স্বাস্থ্য পরীক্ষা ও চিকিৎসার সব ব্যবস্থা রয়েছে। আলাদা করে স্বাস্থ্য পরীক্ষার প্রয়োজন নেই।