• banlag
  • newspaper-active
  • epaper

শুক্রবার, ১০ জুলাই ২০২০, ২৬ আষাঢ় ১৪২৭, ১৮ জিলকদ ১৪৪১

আজ থেকে এয়ার অ্যারাবিয়া’র ঢাকা ফ্লাইট চলবে

৩ জুলাই শুরু টার্কিশ এয়ার

    সংবাদ :
  • নিজস্ব বার্তা পরিবেশক
  • | ঢাকা , বুধবার, ০১ জুলাই ২০২০

করোনাভাইরাসের কারণে নিষেধাজ্ঞার পরে ঢাকা থেকে ট্রানজিট যাত্রী পরিবহনসহ আন্তর্জাতিক ৫টি রুটে ফ্লাইট চলাচলের অনুমোদন দিয়েছে বেসামরিক বিমান চলাচল কর্তৃপক্ষ (বেবিচক)। এরমধ্যে আজ থেকে সপ্তাহে দু’দিন ট্রানজিট যাত্রী পরিবহনে ফ্লাইট পরিচালনা করবে এয়ার অ্যারাবিয়া। এছাড়া আগামী ৩ জুলাই থেকে সপ্তাহে ৩ দিন ফ্লাইট পরিচালনা করবে তুরস্কের উড়োজাহাজ সংস্থা টার্কিশ এয়ারলাইন্স। আগে থেকে নিয়মিত ফ্লাইট চলাচল করছে ইউএস-বাংলা এয়ারলাইন্সের ঢাকা থেকে চীন, মধ্যপ্রাচ্যের কাতার-দুবাই রুটে (ট্রানজিট) কাতার এয়ারওয়েজ ও এমিরেটস এবং ঢাকা-লন্ডন রুটে সপ্তাহে একদিন করে বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্স ফ্লাইট পরিচালনা করছে বলে বেসামরিক বিমান চলাচল কর্তৃপক্ষ (বেবিচক) সূত্র জানায়। তবে ঢাকা থেকে আন্তর্জাতিক প্রতিটি ফ্লাইট ছাড়ার সময় প্রায় ভরা থাকলেও বাংলাদেশে খুব কম লোকই আসছে বলে বেবিচক কর্মকর্তা জানান।

জানা গেছে, করোনাভাইরাস পরিস্থিতিতে নিষেধাজ্ঞা ওঠার পর আজ থেকে ফের ঢাকায় ফ্লাইট পরিচালনার অনুমতি দেয়া হয়েছে সংযুক্ত আরব আমিরাত ভিত্তিক উড়োজাহাজ সংস্থা এয়ার অ্যারাবিয়া ও টার্কিশ এয়ারলাইন্সকে। সপ্তাহে দু’দিন করে আজ থেকে এয়ার অ্যারাবিয়া ফ্লাইট পরিচালনা করবে। সংযুক্ত আরব আমিরাতের শারজাহ থেকে এয়ার অ্যারাবিয়ার ফ্লাইট বুধবার সকাল ৯টায় হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে অবতরণ করবে। পরে সকাল ৯টা ৪০ মিনিটে ফের শারজাহর উদ্দেশে ঢাকা ছাড়বে।

এদিকে করোনা পরিস্থিতিতে নিষেধাজ্ঞা ওঠার পর ৩ জুলাই থেকে টার্কিশ এয়ারলাইন্সকে সপ্তাহে তিনটি ফ্লাইট পরিচালনার অনুমতি দিয়েছে বেসামরিক বিমান চলাচল কর্তৃপক্ষ (বেবিচক)। সপ্তাহের প্রতি রোব, মঙ্গল ও শুক্রবার ফ্লাইট পরিচালনার অনুমতি দেয়া হয়েছে। সেই হিসাবে ৩ জুলাই ভোরে বাংলাদেশে অবতরণ করবে টার্কিশ এয়ারলাইন্সের ফ্লাইটটি। ওইদিন সকাল ৬টা ৩৫ মিনিটে ঢাকা থেকে যাত্রী তুরস্কের ইস্তাম্বুলে যাত্রা করবে। টার্কিশ এয়ারলাইন্স ব্যবহার করে ইস্তাম্বুলে ট্রানজিট হয়ে বাংলাদেশি যাত্রীরা বিশ্বের বিভিন্ন দেশে যেতে পারবে। এ বিষয়ে টার্কিশ এয়ারলাইন্সের বাংলাদেশের সেলস অ্যান্ড ট্রাফিক অফিসার এজাজ কাদরি সাংবাদিকদের বলেন, অনেকে আগে থেকেই টিকিট কেটে রেখেছেন, তাদের যাত্রার তারিখ এই তিন দিন ছাড়া অন্য দিন হলে বিনামূল্যে পরিবর্তন করতে পারবেন।

বেবিচক’র সূত্র জানায়, বর্তমানে বাংলাদেশ থেকে আন্তর্জাতিক রুটে চীন, মধ্যপ্রাচ্যের কাতার-দুবাই (ট্রানজিট) ও যুক্তরাজ্যের সঙ্গে (শুধুমাত্র লন্ডন) উড়োজাহাজ চলাচল করছে। এছাড়া ১ জুলাই থেকে ঢাকা-তুরস্ক রুটে টার্কিশ এয়ারলাইন্স ও সংযুক্ত আরব আমিরাতভিত্তিক উড়োজাহাজ সংস্থা এয়ার অ্যারাবিয়া ফ্লাইট চলাচল করবে। তবে এ সব রুটগুলোতে ঢাকা থেকে যাত্রী গেলেও দেশে আসছেন কম। ইউএস-বাংলা এয়ারলাইন্সের ঢাকা থেকে চীনের গুয়াঞ্জু রুটের ফ্লাইটে যাত্রী সংখ্যা অনেক কমেছে। প্রতিদিন গড়ে ঢাকা থেকে গুয়াঞ্জু যাচ্ছেন ১০০ জন, ঢাকা ফিরছেন ২০ থেকে ২৫ জন। সপ্তাহে একদিন ফ্লাইট পরিচালনাকারী বিমান বাংলাদেশের প্রথম ফ্লাইটে লন্ডন গেছেন ১৮৭ জন। যাওয়ার সময় ফ্লাইটটি প্রায় ভরা থাকলেও ঢাকায় ফেরার সময় যাত্রী সংখ্যা ছিল মাত্র ২৮ জন। সপ্তাহে তিন দিন করে ফ্লাইট পরিচালনাকারী কাতার এয়ারওয়েজ ও এমিরেটসের ফ্লাইট ঢাকা থেকে ছাড়ার সময় প্রায় ভরা থাকলেও বাংলাদেশে খুব কম লোকই আসছেন বলে সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা জানায়।