• banlag
  • newspaper-active
  • epaper

শুক্রবার, ০২ অক্টোবর ২০২০, ১৪ সফর ১৪৪২, ১৭ আশ্বিন ১৪২৭

দেশের করোনা পরিস্থিতি

আক্রান্ত ২৫ হাজার পার

২৪ ঘণ্টায় মৃত্যু ২১ নতুন শনাক্ত ১২৫১ জন

    সংবাদ :
  • নিজস্ব বার্তা পরিবেশক
  • | ঢাকা , বুধবার, ২০ মে ২০২০

image

দেশে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ২৫ হাজার পেরিয়ে গেছে। গত ২৪ ঘণ্টায় মারা গেছেন আরও ২১ জন। এ পর্যন্ত করোনায় মৃত্যু ৩৭০ জনে দাঁড়িয়েছে। এদিকে গত ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে আক্রান্ত হিসেবে আরও ১২৫১ জন শনাক্ত হয়েছে। সব মিলিয়ে এখন পর্যন্ত আক্রান্তের সংখ্যা ২৫ হাজার ১২১ জনে দাঁড়িয়েছে। চিকিৎসকরা আশঙ্কা করছেন ঈদকে ঘিরে মানুষের যেভাবে বাড়ি যাওয়ার হিড়িক তৈরি হয়েছে এবং কেনাকাটা থেকে শুরু করে কোন ক্ষেত্রেই সামাজিক দূরত্ব বা স্বাস্থ্যবিধি অম্যান্য করা হচ্ছে এতে সংক্রমণে কত মানুষ আক্রান্ত এবং প্রাণ হারায় তা হিসাব করা যাবে না। পরিস্থিতি আরও ভয়াবহ হয়ে উঠছে।

স্বাস্থ্য অধিদফতরের করোনাভাইরাস বিষয়ক নিয়মিত হেলথ বুলেটিনে অধিদফতরের অতিরিক্ত মহাপরিচালক অধ্যাপক ডা. নাসিমা সুলতানা গত সোমবার সকাল থেকে গতকাল সকাল পর্যন্ত ২৪ ঘণ্টার পরিস্থিতি তুলে ধরে বলেন, গত ২৪ ঘণ্টায় করোনাভাইরাস শনাক্তে আরও ৯ হাজার ৯১টি নমুনা সংগ্রহ করা হয়। পরীক্ষা করা হয় ৮ হাজার ৪৪৯টি নমুনা। নতুন নমুনা পরীক্ষায় আরও ১২৫১ জনের দেহে করোনাভাইরাস শনাক্ত হয়েছে। এ নিয়ে দেশে মোট আক্রান্ত হিসেবে শনাক্ত হয়েছেন ২৫ হাজার ১২১ জন।

বুলেটিনে বলা হয়, গত ২৪ ঘণ্টায় আক্রান্তদের মধ্যে মারা গেছেন আরও ২১ জন। ফলে মৃতের সংখ্যা দাঁড়ালো ৩৭০ জনে। গত ২৪ ঘণ্টায় যারা মারা গেছেন, তাদের ১৩ জন হাসপাতালে মৃত্যুবরণ করেছেন, তিনজন বাসায় এবং পাঁচজন হাসপাতালে মৃত অবস্থায় এসেছেন। বয়সের দিক থেকে একজন ১১ থে?কে ২০ বছরের, দু’জন ২১ থে?কে ৩০ বছ?রের, দু’জন ত্রিশোর্ধ্ব, পাঁচজন চশ্লিশোর্ধ্ব, পাঁচজন পঞ্চাশোর্ধ্ব, চারজন ষাটোর্ধ্ব এবং দু’জন সত্তরোর্ধ্ব। এদের মধ্যে ঢাকা বিভাগের ১৪ জন, চট্টগ্রাম বিভাগের চারজন এবং ময়মন?সিং?হ, ব?রিশাল ও খুলনা বিভা?গের একজন ক?রে রয়েছেন। ঢাকা বিভাগের মধ্যে রাজধানীতে সাতজন এবং জেলায় দু’জন, নারায়ণগঞ্জে দু’জন, গাজীপুরে দু’জন ও নরসিংদীতে একজন মারা গেছেন। চট্টগ্রাম বিভাগের মধ্যে চট্টগ্রাম জেলায় একজন, কুমিল্লা জেলায় দু’জন, চাঁদপুরে একজনের মৃত্যু হয়েছে। এছাড়া অন্য তিন বিভাগের মধ্যে শেরপুর, বাগেরহাট ও ঝালকাঠিতে একজন করে মারা গেছেন।

বুলেটিনে বলা হয়, গত ২৪ ঘণ্টায় সুস্থ হয়েছেন আরও ৪০৮ জন। সবমিলিয়ে এ পর্যন্ত সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন ৪ হাজার ৯৯৩ জন। এ পর্যন্ত দেশে মোট নমুনা পরীক্ষা করা হলো ১ লাখ ৯৩ হাজার ৬৪৫টি। বুলেটিনে বলা হয়, গত ২৪ ঘণ্টায় আইসোলেশনে নেয়া হয়েছে আরও ৩২৬ জনকে এবং বর্তমানে আইসোলেশনে রয়েছেন ৩ হাজার ৬১৬ জন। গত ২৪ ঘণ্টায় আইসোলেশন থেকে ছাড় পেয়েছেন ৯৩ জন এবং এ পর্যন্ত ছাড় পেয়েছেন ১৭৯৩ জন। বুলেটিনে বলা হয়, সারাদেশে আইসোলেশন শয্যা আছে ১৩ হাজার ২৮৪টি। গত ২৪ ঘণ্টায় ঢাকায় আইসোলেশন শয্যা বেড়েছে ৪ হাজার ১৫০টি। মোট আইসোলেশন শয্যার মধ্যে রাজধানী ঢাকায় ৭ হাজার ২৫০টি এবং ঢাকার বাইরে আছে ৬ হাজার ৩৪টি। এসব হাসপাতালে আইসিইউ শয্যা আছে ৩৯৯টি। গত ২৪ ঘণ্টায় রাজধানী ঢাকার বিভিন্ন হাসপাতালে আইসিইউ শয্যা বেড়েছে ৬০টি। ডায়ালাইসিস ইউনিট আছে ১০৪টি।

বুলেটিনে বলা হয়, গত ২৪ ঘণ্টায় হোম ও প্রাতিষ্ঠানিক মিলিয়ে কোয়ারেন্টিনে নেয়া হয়েছে ৩ হাজার ৫৩১ জনকে। এ পর্যন্ত কোয়ারেন্টিনে নেয়া হয়েছে ২ লাখ ৪৭ হাজার ৪৯১ জনকে। গত ২৪ ঘণ্টায় কোয়ারেন্টিন থেকে ছাড় পেয়েছেন ২ হাজার ৭০২ জন। এ পর্যন্ত মোট ছাড় পেয়েছেন ১ লাখ ৯৬ হাজার ২৭৪ জন। বর্তমানে হোম ও প্রাতিষ্ঠানিক মিলিয়ে কোয়ারেন্টিনে রয়েছেন ৫১ হাজার ২১৭ জন। দেশের বিভিন্ন জেলা-উপজেলা পর্যায়ে প্রাতিষ্ঠানিক কোয়ারেন্টিনের জন্য ৬২৭টি প্রতিষ্ঠান প্রস্তুত রয়েছে। এসব প্রতিষ্ঠানের মাধ্যমে তাৎক্ষণিকভাবে সেবা দেয়া যাবে ৩১ হাজার ৮৪০ জনকে।

পুলিশে আরও ১২৮ জন আক্রান্ত

এদিকে দেশে গত ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে ১২৮ জন পুলিশ সদস্য করোনাভাইরাসে (কোভিড-১৯) আক্রান্ত হয়েছেন। সব মিলিয়ে সারাদেশে পুলিশে আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ২ হাজার ৭৪৯ জনে। এ পর্যন্ত ৯ পুলিশ সদস্য করোনায় প্রাণ হারিয়েছেন। আক্রান্তদের মধ্যে শুধু ঢাকা মহানগর পুলিশেই (ডিএমপি) আক্রান্ত ১ হাজার ৯৫ পুলিশ সদস্য।

পুলিশের সুরক্ষার বিষয়ে জানতে চাইলে পুলিশ সদর দফতরের সহকারী মহাপরিদর্শক (এআইজি-মিডিয়া) সোহেল রানা বলেন, মাঠে নিয়োজিত সদস্যরা যেন স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলতে ও সুরক্ষিত থাকতে পারেন, সেজন্য সচেতনতার পাশাপাশি সরকার নির্দেশিত স্বাস্থ্যবিধি জানানো হচ্ছে। সিনিয়র অফিসাররাও বিভিন্ন ইউনিটে গিয়ে তাদের সঙ্গে এসব নিয়ে কথা বলছেন। সুরক্ষা সামগ্রী ও পর্যাপ্ত জীবাণুনাশক সরবরাহ এবং ব্যবহার নিশ্চিত করা হয়েছে।