• banlag
  • newspaper-active
  • epaper

বৃহস্পতিবার, ১২ ডিসেম্বর ২০১৯, ২৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৬, ১৪ রবিউস সানি ১৪৪১

অকাল বন্যা পরিস্থিতির অবনতি

    সংবাদ :
  • সংবাদ ডেস্ক
  • | ঢাকা , শুক্রবার, ০৪ অক্টোবর ২০১৯

দেশের বিভিন্ন স্থানে নদ-নদীর পানি বৃদ্ধি পাওয়ায় বন্যা পরিস্থিতি অবনতি হয়েছে। চাঁপাইনবাবগঞ্জের ৩টি উপজেলার ৫৮ হাজার মানুষ পানিবন্দী রয়েছে। রাজবাড়ীর বালিয়াকান্দিতে বেড়িবাঁধ তলিয়ে যাওয়ার আশঙ্কায় আতঙ্কে দিন কাটাচ্ছে ৫ গ্রামের মানুষ। প্রতিনিধিদের পাঠানো খবর।

চাঁপাইনবাবগঞ্জ : চাঁপাইনবাবগঞ্জে পদ্মা, মহানন্দা ও পুনর্ভবা নদীর পানি বৃদ্ধি পেয়েছে। ৩ টি উপজেলার ১৮টি ইউনিয়নের ১৩ হাজার ৯’শ ৩ পরিবারের ৫৮ হাজার মানুষ পানিবন্দী হয়ে রয়েছে। গোমস্তাপুুরের ব্রজনাথপুরে মহানন্দা নদী ভাঙ্গন দেখা দিয়েছে বলে পানি উন্নয়ন বোর্ড সূত্রে জানা গেছে। পানি উন্নয়ন বোর্ড চাঁপাইনবাবগঞ্জের নির্বাহী প্রকৌশলী সৈয়দ সাহেদুল আলম জানান, বৃহস্পতিবার দুপুর পর্যন্ত মহানন্দায় ৩ সেমি পানি বৃদ্ধি পেয়ে বিপদসীমার মাত্র ১২ সেমি নিচ দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে। পদ্মার পানি বিপদসীমার ২৭ সেমি নিচ দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে। পুনর্ভবা নদীর পানি বিপদসীমার ৪৪ সেমি নিচ দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে। গোমস্তাপুুরের ব্রজনাথপুরে মহানন্দা নদীর বামদিকে ভাঙ্গন কবলিত এলাকা পরিদর্শন করেন পানি উন্নয়ন বোর্ডের সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তা।

জেলা ত্রাণ ও পুনর্বাসন কর্মকর্তা হাসানুজ্জামান ফৌজদার জানান. বন্যায় সবচেয়ে বেশি ক্ষতিগ্রস্থ হয়েছে সদর উপজেলার আলাতুলি ও পাঁকা ইউনিয়ন।

বালিয়াকান্দি (রাজবাড়ী) : গড়াই নদীতে পানি বৃদ্ধির ফলে রাজবাড়ীর বালিয়াকান্দিতে বেড়িবাঁধ তলিয়ে ও ভেঙ্গে যাওয়ার আশঙ্কায় দিন কাটছে ৫টি গ্রামের বাসিন্ধারা। আর মাত্র ৪ ইঞ্চি পানি বাড়লেই তলিয়ে যাবে বেড়িবাঁধ। বেড়িবাঁধের মধ্যে থাকা পরিবারগুলো পানিবন্দী হয়ে পড়েছে।

নারুয়া ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মো. আবদুস সালাম মাস্টার বলেন, নারুয়া ইউনিয়নের জামসাপুর ও কোনাগ্রামের অর্ধশত পরিবার পানিবন্দী হয়ে পড়েছে। আর মাত্র ৪ ইঞ্চি পানি বৃদ্ধি পেলেই মরাবিলা-কোনাগ্রাম সড়কের মরাবিলা এলাকায় বেড়িবাঁধ তলিয়ে ও ভেঙ্গে যাওয়ার আশঙ্কা দেখা দিয়েছে। দ্রুত মেরামত না করা হলে যে কোন সময় বেড়িবাঁধ ভেঙ্গে তলিয়ে যেতে পারে কোনাগ্রাম, জামসাপুর, মরাবিলা, চরঘিকমলা, বাকসাডাঙ্গীসহ আশপাশের গ্রামগুলো।

উপজেলা নির্বাহী অফিসার ইশরাত জাহান বলেন, বেড়িবাঁধ মেরামতের বিষয়ে দ্রুত পদক্ষেপ নেয়া হবে।