• banlag
  • newspaper-active
  • epaper

বৃহস্পতিবার, ১৭ অক্টোবর ২০১৯, ২ কার্তিক ১৪২৬, ১৭ সফর ১৪৪১

বুড়িগঙ্গা-তুরাগ তীরের ৫৫টি স্থাপনা উচ্ছেদ

    সংবাদ :
  • নিজস্ব বার্তা পরিবেশক
  • | ঢাকা , শুক্রবার, ১৫ মার্চ ২০১৯

image

গতকাল বুড়িগঙ্গা তুরাগ তীরে উচ্ছেদ অভিযান চালায় বিআইডব্লিউটিএ। আমিনবাজার এলাকা থেকে তোলা-সংবাদ

বুড়িগঙ্গা-তুরাগ তীর দখল করে গড়ে ওঠা অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদে অভিযান চালিয়েছে বাংলাদেশ অভ্যন্তরীণ নৌ পরিবহন কর্তৃপক্ষ (বিআইডব্লিউটিএ)। গতকাল সকাল ৯টার দিকে ১৮তম দিনের মতো এই অভিযান শুরু হয়। অভিযানে অবৈধভাবে গড়ে ওঠা ৫৫টি স্থাপনা গুঁড়িয়ে দেয়া হয়েছে। বিআইডব্লিউটিএ বলছে, বুড়িগঙ্গা-তুরাগে উচ্ছেদ অভিযানের ২য় পর্বের ২য় পর্যায়ের গতকাল ছিল শেষ দিন। ২য় পর্বের ৩য় পর্যায়ের কাজ আগামী ১৯ মার্চ সকাল ৯টা থেকে তুরাগ নদে গাবতলী থেকে আমিনবাজার পর্যন্ত তীর দখলমুক্ত করতে তিনদিন উচ্ছেদ অভিযান চলবে।

বিআইডব্লিউটিএ’র যুগ্ম-পরিচালক এ কে এম আরিফ উদ্দিন জানান, গতকাল সাভারের বড়বরদেশী মৌজা, গাবতলী ও আমিনবাজারে তুরাগ নদে উভয় তীরে ৫৫টি অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ করা হয়। এর মধ্যে রয়েছে পাকা বাউন্ডারি ওয়াল ২০টি, বাঁশের জেটি ১৫টি ও টিনের ঘর ২০টি। ২৯ জানুয়ারি থেকে ১৪ মার্চ পর্যন্ত ১৮ কার্যদিবসে মোট ২ হাজার ২৬টি অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ করা হয়েছে। অবমুক্ত করা হয়েছে ৫২ একর জমি।

প্রসঙ্গত, ২০১৬ সালে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা একনেক বৈঠকে ঢাকার চারপাশের নদী ও চট্টগ্রামের কর্ণফুলী নদীর দূষণ বন্ধ ও নাব্যতা ফিরিয়ে এনে নদী রক্ষায় টাস্কফোর্স গঠন করে দেন। এরই ধারাবাহিকতায় এ উচ্ছেদ কার্যক্রম চলছে। নৌ প্রতিমন্ত্রী খালিদ মাহমুদ চৌধুরী সম্প্রতি সংসদে বলেন, নদী তীরে অবৈধ দখল উচ্ছেদ ঠেকাতে কারও প্রভাবই খাটবে না। বিআইডব্লিউটিএ যে অভিযান শুরু করেছে, তা অব্যাহত থাকবে।