• banlag
  • newspaper-active
  • epaper

সোমবার, ০৬ এপ্রিল ২০২০, ২৩ চৈত্র ১৪২৬, ১১ শাবান ১৪৪১

রাজধানীর ফ্রেন্ডশিপ হাসপাতালে

ফার্মাসিস্টের লাশ উদ্ধার পরিচালক পলাতক

হত্যার অভিযোগ পরিবারের

    সংবাদ :
  • নিজস্ব বার্তা পরিবেশক
  • | ঢাকা , শনিবার, ১৫ ফেব্রুয়ারী ২০২০

রাজধানীর ডেমরার মাতুয়াইলের ফ্রেন্ডশিপ হাসপাতালের একটি কক্ষ থেকে মোবারক হোসেন (৩৩) নামে এক ফার্মাসিস্টের লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। গতকাল সকাল সাড়ে ১১টার দিকে হাসপাতালটির ৩য় তলার একটি কক্ষ থেকে মোবারক হোসেনের ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার করা হয়। এরপর থেকেই পলাতক রয়েছেন হাসপাতালটির পরিচালক জামাল হোসেন। পুলিশ বলছে, প্রাথমিকভাবে মোবারককে হত্যার সন্দেহ করা হচ্ছে। জামালকে আটক করা গেলে ঘটনাটি স্পষ্ট হবে। জানা গেছে, নিহত মোবারক ভোলা জেলার লালমোহন উপজেলার সলেমান ব্যাপারীর ছেলে। গত ৭ মাস আগে বিয়ে করেন তিনি। স্ত্রীকে নিয়ে শনিরআখরা এলাকার একটি বাসায় ভাড়া থাকতেন এবং সাইনবোর্ড এলাকার প্রো-একটিভ মেডিকেল কলেজ অ্যান্ড হাসপাতালের ফার্মাসিস্ট হিসেবে কর্মরত ছিলেন।

নিহতের বন্ধু মো. নাহিদ বলেন, প্রতিদিনের মতো গত বৃহস্পতিবার সকাল ৮টার দিকে বাসা থেকে অফিসে যায় মোবারক। দুপুর ২টার দিকে স্ত্রীকে ফোন দিয়ে জানায় বাসায় ফিরতে একটু দেরি হবে। এরপর থেকে তার কোন খোঁজ পাওয়া যাচ্ছিল না। মোবাইল ফোনটিও বন্ধ পাওয়া যায়। পরে গতকাল দুপুরে ফ্রেন্ডশিপ হাসপাতাল থেকে মোবারকের লাশ উদ্ধারের খবর জানায় পুলিশ। নাহিদ অভিযোগ করে বলেন, ফ্রেন্ডশিপ হাসপাতালের পরিচালক জামাল আগে প্রো-একটিভ হাসপাতালে কর্মরত ছিলেন। তখন থেকে মোবারকের সঙ্গে পরিচয় তার। গত বৃহস্পতিবার দুপুরে মোবারককে ফোন করে ফ্রেন্ডশিপ হাসপাতালে ডেকে নিয়ে হত্যা করে জামাল। এখন হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ এটিকে আত্মহত্যা হিসেবে চালিয়ে দিতে চাচ্ছে।

ডেমরা জোনের এসি মো. রবিউল ইসলাম বলেন, হাসপাতালের ৩য় তলার একটি কক্ষের দরজা ভেঙে জানালার গ্রিলের সঙ্গে গলায় মোটা তাওয়াল পেঁচানো অবস্থায় মোবারকের লাশ উদ্ধার করা হয়। লাশটি ময়নাতদন্তের জন্য স্যার সলিমুল্লা মেডিকেল কলেজ (মিটফোর্ড) হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে। দরজারটি ভেতর থেকে আটকানো থাকলেও আমরা এটিকে হত্যাকা- হিসেবে ধরে নিয়েছি। তিনি আরও বলেন, হাসপাতালটির পরিচালক জামাল পলাতক রয়েছে। তাকে আটকের জন্য সর্বাত্মক চেষ্টা করা হচ্ছে। ইতোমধ্যে দুই জায়গায় অভিযানও চালানো হয়েছে। তাকে আটক করা গেলে পুরো ঘটনা স্পষ্ট হওয়া যাবে। তবে, এ ঘটনায় হাসপাতালের ২ কর্মচারীকে আটক করে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে। কিন্তু তারা তেমন কোন তথ্য দিতে পারেনি। এ ঘটনায় গতকাল রাতেই স্বজনরা একটি হত্যা মামলা দায়ের করেছেন বলে জানা গেছে।