• banlag
  • newspaper-active
  • epaper

রবিবার, ০৭ জুন ২০২০, ২৪ জৈষ্ঠ ১৪২৭, ১৪ শাওয়াল ১৪৪১

শুভ জন্মদিন ঝুনা চৌধুরী

    সংবাদ :
  • বিনোদন প্রতিবেদক
  • | ঢাকা , বুধবার, ১১ মার্চ ২০২০

image

ঝুনা চৌধুরী, বাংলাদেশের মঞ্চ নাটকের আলোচিত অভিনেতা, আলোকিত ব্যক্তিত্ব। পাশাপাশি টিভি নাটকের, সিনেমারও একজন সমাদৃত অভিনেতা। হবিগঞ্জের শায়েস্তাগঞ্জের সন্তান ঝুনা চৌধুরীর অভিনয়ে যাত্রা শুরু হয় হবিগঞ্জে থাকাকালীন সময়ে ১৯৭১ ও ১৯৭২ সালে ‘জয় বাংলা সংসদ’র মধ্যদিয়ে। ১৯৮০ সাল পর্যন্ত এর কার্যক্রম চালু ছিল। ১৯৭৮ সালে ঢাকা কলেজে ‘ত্রি-রত্ন’ নাটকে অভিনয় করেন। একইসময়ে তিনি নাট্যদল ‘থিয়েটার’র সঙ্গে নিজেকে সম্পৃক্ত করেন। এই দলের হয়ে তিনি ‘এখনো কৃতদাস’, ‘পায়ের আওয়াজ পাওয়া যায়’, ‘এখানে এখন’, ‘সেনাপতি’, ‘যুদ্ধ এবং যুদ্ধ’সহ আরও বেশকিছু নাটকে অভিনয় করেন। পরবর্তীতে ১৯৯০ সালে ঝুনা চৌধুরী, তারিক আনাম খান এবং তৌকীর আহমেদ মিলে নাট্যদল ‘নাট্যকেন্দ্র’র জন্ম দেন। এই দলেরই হয়ে এখনও কাজ করছেন ঝুনা চৌধুরী। এ দলের দলপ্রধান তারিক আনাম খান এবং প্রধান সম্পাদক ঝুনা চৌধুরী। এ দলের হয়ে ঝুনা চৌধুরী অভিনয় করেছেন বিচ্ছু’, তুগলক’সহ আরও চার পাঁচটি নাটকে। মূলত একজন ঝুনা চৌধুরীর মঞ্চের জন্য নিবেদিত প্রাণ। টিভি নাটকে তাকে প্রথম দেখা যায় মো. জাকারিয়া প্রযোজিত ‘নিভৃত যতনে’ নাটকে। এরপর থেকে আজ অবধি বহুনাটকে অভিনয় করেছেন তিনি। তার অভিনীত প্রথম সিনেমা জহিরুল হকের ‘ইয়ে করে বিয়ে’। এরপর তিনি তানভীর মোকাম্মেলের ‘চিত্রা নদীর পাড়ে’, ‘ মুরাদ পারভেজ’র ‘বৃহন্নলা’সহ আরও বেশিকিছু সিনেমায় অভিনয় করেছেন। আগামী ২৩ মার্চ থেকে তিনি কবরীর নির্দেশনায় একটি অনুদানের সিনেমায় কাজ করবেন। এদিকে আজ ঝুনা চৌধুরীর জন্মদিন।

নিজের জন্মদিনে তেমন বিশেষ কিছুর আয়োজন করেন না তিনি। দিনটিকে ঘিরে তার নিজের তেমন কোন পরিকল্পনাও থাকে না। নিজের বর্তমান অবস্থান এবং জন্মদিন প্রসঙ্গে ঝুনা চৌধুরী বলেন, ‘আমার আজকের অবস্থানের নেপথ্যে আমার মেজ ভাই চৌধুরী সানওয়ার আলী, আমার ছোট আপা মানোয়ার তাহির, রামেন্দু মজমুদার দাদা এবং তারিক আনাম খানের অবদান বিশেষভাবে উল্লেখযোগ্য। তাদের পূর্ণ সমর্থন, সহযোগিতা ছিল বলেই আমি আজকের অবস্থানে আসতে পেরেছি। আর জন্মদিনে কখনোই কোন আয়োজন থাকে না আমার। যথারীতি এবারও নেই। সত্যি বলতে কী জন্মদিন আসা মানেই তো হলো জীবন থেকে আরো একটি বছর চলে যাওয়া। তাই উৎসব করে আরও একটি বছর যে চলে গেল তার জানান দিতে আগ্রহী নই। শুধু সবার কাছে দোয়া চাই আল্লাহ যেন আমাকে, আমার পরিবারের সবাইকে ভালো রাখেন সুস্থ রাখেন।’