• banlag
  • newspaper-active
  • epaper

সোমবার, ১৫ অক্টোবর ২০১৮, ৩০ আশ্বিন ১৪২৫, ৪ সফর ১৪৪০

শিক্ষক ছাত্রের দেখা এক যুগ পর

    সংবাদ :
  • বিনোদন প্রতিবেদক
  • | ঢাকা , মঙ্গলবার, ১৩ ফেব্রুয়ারী ২০১৮

image

অভিনেতা চঞ্চল চৌধুরী ও ফটোগ্রাফার গোলাম সাব্বির পারস্পরিক শিক্ষক ছাত্র। আজ থেকে এক যুগেরও বেশি সময় আগে চঞ্চল চৌধুরী রাজধানীর ‘কলেজ অব ডেভেলপম্যান্ট অলটারনেটিভ’র চারুকলা বিভাগের প্রভাষক ছিলেন। সেই কলেজেরই ছাত্র ছিলেন গোলাম সাব্বির। বহু দিন আগে সেই কলেজ থেকে পড়াশুনা শেষ করে বেরিয়েছেন গোলাম সাব্বির। অন্যদিকে পরবর্তীতে শিক্ষকতা পেশা ছেড়ে অভিনয়েই পেশাদার হয়ে উঠেন চঞ্চল চৌধুরী। দু’জনের পথ আলাদা হয়ে গেলেও একসময় গোলাম সাব্বির মডেল ফটোগ্রাফিতে আগ্রহী হয়ে উঠে পেশা হিসেবে ফটোগ্রাফিকেই বেছে নেন। যে কারণে ফটোগ্রাফি সার্ভিস ‘পার্পেল বার্ড’র ঢাকার প্রধান হয়ে মাঝে মধ্যে মডেল ফটোগ্রাফিতে ব্যস্ত থাকতে হয় গোলাম সাব্বিরকে। ঠিক তেমনি একটি অনুষ্ঠানে চঞ্চল চৌধুরীর সঙ্গে সম্প্রতি দেখা হয় গোলাম সাব্বিরের। অনেক ছাত্রের মধ্যে গোলাম সাব্বিরকে মনে রাখা চঞ্চল চৌধুরীর জন্য একটু কঠিন হলেও একসময় নানান আলাপচারিতায় চঞ্চল মনে করতে পারেন যে সাব্বির তারই ছাত্র ছিলেন। তখন সেখানে ছাত্র শিক্ষকের জমে উঠে আড্ডা। চঞ্চল বলেন, আমার ছাত্রের ক্যামেরার ফ্রেমে নিজেকে বন্দী করতে পেরে বেশ ভালো লাগছে। তাছাড়া আমার একজন ছাত্র এই পেশাতে জড়িত, এটা আমারও অনেক ভালোলাগার বিষয়। গোলাম সাব্বিরের জন্য অনেক দোয়া যেন সে ফটোগ্রাফিতে আরো সুনাম অর্জন করতে পারে। গোলাম সাব্বির বলেন, সবার কাছে তিনি অভিনেতা চঞ্চল চৌধুরী হলেও আমার কাছে তিনি একজন শিক্ষক। তাকে আমি অনেক শ্রদ্ধা করি, ভালোবাসি। অনেক দিন পর স্যারের সঙ্গে দেখা হওয়ায় খুব ভালো লাগছে। উল্লেখ্য, চঞ্চল চৌধুরী অভিনীত ‘মনপুরা’ এবং ‘আয়নাবাজি’ চলচ্চিত্র দুটি হলে বসে উপভোগ করেছেন সাব্বির। এদিকে চঞ্চল চৌধুরী অনম বিশ্বাসের নির্দেশনায় ‘দেবী’ চলচ্চিত্রের ডাবিং-এর কাজ শেষ করেছেন। এর মধ্যে তিনি রানা মাসুদের নির্দেশনায় নতুন একটি বিজ্ঞাপনেও মডেল হয়েছেন। হেয়ার কালারের এই বিজ্ঞাপনটি শীঘ্রই বাজারে আসবে।