• banlag
  • newspaper-active
  • epaper

মঙ্গলবার, ২৪ এপ্রিল ২০১৮, ১১ বৈশাখ ১৪২৪,৭ শাবান ১৪৩৯

নেপালে চিত্রায়িত হলো ঈদের ১০ নাটক

সংবাদ :
  • বিনোদন প্রতিবেদক

| ঢাকা , মঙ্গলবার, ১৭ এপ্রিল ২০১৮

image

বাঁধন ড্রিম ভিশনের ব্যানারে সম্প্রতি ১০টি এক ঘণ্টার নাটকের শুটিং হয়ে গেল নেপালের বিভিন্ন মনোরোম লোকেশানে। নাটকগুলো আগামী ঈদের জন্য নির্মিত, এগুলো পরিচালনা করেছেন দীপু হাজরা, আসাদুজ্জামান আসাদ ও আমিনুল ইসলাম। এ ব্যাপারে প্রযোজক বোরহান খাঁন বলে ৭টি ১ ঘণ্টার নাটক ও একটি ৭ পর্বের নাটক করার কথা থাকলেও সময় সাপেক্ষ ১০টি এক ঘণ্টার নাটকের শুটিং শেষ করা হয়। মোট ১১ দিনে দুটো ক্যামরার মাধ্যমে এ কাজগুলো পরিচালিত হয়। একটি ক্যামরা পরিচালনা করেন নাঈম ফুয়াদ ও আরেকটি পরিচালনা করেন আসাদুজ্জামান নিজেই। তার সহকারী হিসেবে ছিলেন সুজিত বিশ্বাস। গল্প ও লোকেশন নির্ভর নাটকগুলোর বিভিন্ন চরিত্রে অভিনয় করেছেন, এরফান সাজ্জাদ, জোবান, গোলাম কিবরিয়া তানভীর, তানজিন তিষা, প্রসুন আজাদ, আজমেরী আয়েশা, আসিফ নজরুল ও নেপালের স্থানীয় কিছু শিল্পী।

নাটকগুলো হলো- খুজে ফিরি আপনায়, লাফিং বুদ্ধ, ওয়াও নেপাল, কন্কাবতির আংটি, সেভেন ডেজ ইন নেপাল, একদিন এসেছিলে নীরবে, তখন গল্পের তরে জোনাকির আলো, তিন রাজকুমার ও এক রাজকন্যা, নেপাল স্টেনজার ও একটি ম্যাজিক দেখাব।

নাটকগুলো রচনায় ছিলেন : আহসান আলমগীর, মাসুম শাহরিয়ার, রুপান্তর, পারভেজ ইমাম, আসাদুল ইসলাম সোহাগ, জুয়েল কবির ও প্রিন্স। এতে ৬টি নাটক পরিচালনা করেন আসাদুজ্জামান আসাদ ও ৪টি নাটক পরিচালনা করেন দীপু হাজরা। উল্লেখ্য যে নাটকগুলো করার জন্য সম্প্রতি ১৩ সদস্যের একটি টিম নেপালের এয়ারপোর্ট ট্রাজেটি পরবর্তী সময়ে অন্তত সাহসিকতার পরিচয় দিয়ে নেপালে উড়ে যান। তাদের সঙ্গে অভিনেত্রী সারিকা যাবার কথা থাকলেও যাবার দিন পিছু হটে যাবার জন্য পরবর্তীতে আজমেরী আশাকে বাংলাদেশ থেকে নেপালে নেয়া হয় এবং নাটকগুলো শুটিং সম্পন্ন করে সবাই নিরাপদে দেশে ফেরেন।

নাটকগুলোর বেশিরভাগ শুটিং সম্পন্ন হয়, নেপালের থামেল, নাগরকোট, ছুনিখেল, ছৌকার হিল এর পাহাড়ি এলাকার। সামান্য কিছু কাজ করা হয়েছে হোটেল এর লবি, সুইমিং পুল, মার্কেট এবং হোটেলের রুমে। নাটকগুলোর সম্পাদনার কাজ এগিয়ে চলছে। প্রযোজনা সূত্র জানায় মিউজিক এর কাজ সম্পন্ন হলেই এ সপ্তাহের শেষেরদিকে বা আগামী সপ্তাহের শুরুতে নাটকগুলো চ্যানেলে জমা দেয়া শুরু হবে। চ্যানেলের অনুমোদন সাপেক্ষ নাটকগুলো ঈদে বা আগে পরে প্রচারের সম্ভবনা রয়েছে।