• banlag
  • newspaper-active
  • epaper

শুক্রবার, ১৫ জুন ২০১৮, ১ আষাঢ় জ্যৈষ্ঠ ১৪২৫, ২৯ রমজান ১৪৩৯

ছবির গল্প শুনে কেঁদেছি

| ঢাকা , বৃহস্পতিবার, ১৪ জুন ২০১৮

image

আসন্ন ঈদে ‘পোড়ামন-২’ ছবির মধ্য দিয়ে বড় পর্দায় অভিষেক হচ্ছে টিভি অভিনেতা সিয়াম আহমেদ এর। ছবি এবং সম্পর্কিত বিষয় নিয়ে তার সঙ্গে কথা বলেছেন মোহাই মেনুল নিয়ন

ঈদ উৎসবে আপনার প্রথম ছবি মুক্তির বিষয়টি কিভাবে দেখছেন?

এটা অবশ্যই অত্যন্ত ভালো লাগার এবং আনন্দের খবর। নিজের অভিনীত প্রথম ছবি উৎসবে মুক্তি পাওয়াটা ভাগ্যের ব্যাপার। আশা করছি দর্শক নতুনদের উৎসাহ দিতে হলে গিয়ে ছবিটি দেখবেন।

শাকিব খানের ছবির সঙ্গে আপনার ছবি মুক্তি পাচ্ছে। চ্যালেঞ্জিং মনে হচ্ছে ?

অবশ্যই না। আমি নিজেও শাকিব খানের একজন বড় ভক্ত। আমার পুরো টিম নিয়ে আমি এই ঈদে শাকিব খানের ছবি দেখব। আমি আমার দর্শকদের বলব আমার ছবির পাশাপাশি দর্শকরা যেন শাকিব খানের ছবিটিও দেখেন। তিনি অনেক বড় মাপের অভিনেতা। তার আশীর্বাদই আমার কাম্য।

‘পোড়ামন-২’ ছবি সম্পর্কে বলুন!

জাজ মাল্টিমিডিয়া প্রযোজিত এবং রায়হান রাফি পরিচালিত এই ছবিটি মিষ্টি একটি গ্রাম্য প্রেমের গল্প। এ ছবিতে মাটির ঘ্রাণ পাওয়া যাবে। ছবির গল্প শুনে আমি কেঁদেছি। মনের অজান্তে চোখে পানি চলে আসে। গল্পের ভীত এত মজবুত, যে কারণে আমাকে টেনেছে। আমি মনে করি, ছবিটি দেখার পর দর্শকরাও ধাক্কা খাবেন।

সুজন চরিত্রটি কতটুকু নিজের মধ্যে ধারণ করতে পেরেছেন?

আমার এক কাজিন রয়েছে। তার মাঝে আমি সুজনের ছায়া দেখতে পেয়েছি। সুজন সালমান শাহ এর একজন বড় মাপের ফ্যান। শুটিং করতে গিয়ে আমি আমার সেই কাজিনের চরিত্রটিই বারবার ফলো করার চেষ্টা করেছি। তবে শুধু আমার কাজিন নয়, সুজন চরিত্রটি আমি মনে করি আপনি আপনার খুব কাছেই দেখতে পাবেন, কখনও হয়ত আপনি নিজেই সুজন চরিত্রের ছায়া নিজের মাঝে খুঁজে পাবেন।

সহশিল্পী হিসেবে পূজাকে কেমন মূল্যায়ন করবেন?

অবশ্যই অনেক ভালো। আমার একবারও মনে হয়নি সে নতুন। বরং এটাই বলব আর পাঁচজন অভিনেত্রীর তুলনায় সে যথেষ্ট দক্ষ। বয়স কম হলেও সে অভিনয়টা দারুণভাবে রপ্ত করে নিয়েছে। আমি তাকে নিয়ে আশাবাদী।

পরিচালক রায়হান রাফির সঙ্গে কাজের অভিজ্ঞতা জানতে চাই

অভিজ্ঞতা-ভালো এবং খারাপ দুটোই ছিল। তবে দিনশেষে আমরা সবাই একটি টিম হিসেবে কাজ করেছি। চেষ্টা করেছি পরিচালকের প্রেসার কিছুটা হলেও রিলিজ করার। পরিচালক হিসেবে তার ভিজুয়ালাইজেশন প্রশংসনীয়। নতুন পরিচালক নতুন ধারার সিনেমার জন্ম দিবে।

এই ছবির ‘নাম্বার ওয়ান হিরো’ গানটি বিতর্ক সৃষ্টি করেছে।

দেখুন, সবকিছুরই আলোচনা-সমালোচনা দুই থাকে। কিন্তু যখন একটি গান ৭০% দর্শক পছন্দ করবে সেটা অবশ্যই আমরা পজিটিভ হিসেবেই দেখব। গানটি ইউটিউবে মুক্তির পর বিতর্ক যেটা হয়েছে; সেটা সালমান শাহকে গানে ‘নাম্বার ওয়ান হিরো’ বলা হয়েছে। এতে ইন্ডাস্ট্রির বাকিদের অসম্মান করা হয়েছে বলা হচ্ছে। এটা আমিও মানছি। তবে এখানে সালমান শাহকে গানে ‘নাম্বার ওয়ান হিরো’ যে বলেছে সে সিয়াম না, সে সুজন শাহ. সালমান শাহ এর অন্ধ ভক্ত। সুতরাং সে যা বলবে তার পার্সপেকটিভ থেকেই বলবে।