• banlag
  • newspaper-active
  • epaper

সোমবার, ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২০, ০৯ মহররম ১৪৪২, ১০ আশ্বিন ১৪২৭

৪ জেলায় করোনায় নতুন শনাক্ত ১১

সংবাদ :
  • সংবাদে ন্যশনাল ডেস্ক

| ঢাকা , সোমবার, ০৪ মে ২০২০

ঝালকাঠি, ঠাকুরগাঁও, নিলফামারী ও কুমিল্লার হোমনায় নতুন করে ১০ জন করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। বিন্তারিত প্রতিনিধিদের পাঠানো প্রতিবেদনে।

ঝালকাঠিতে নতুন দুই

প্রতিনিধি, ঝালকাঠি

ঝালকাঠিতে নতুন করে আরও দুইজনের শরীরে করোনা শনাক্ত হয়েছে। গতকাল রোববার সকালে বরিশাল শেরে বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল থেকে আসা রিপোর্টে এ তথ্য জানা গেছে। এদের মধ্যে একজন পুরুষ ও একজন নারী রয়েছেন। এ ঘটনায় আশে পাশের ২০টি বাড়ি লকডাউন করেছে জেলা প্রশাসন। এ নিয়ে জেলায় ১১ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে, এদের কারও মধ্যেই করোনা উপসর্গহীন নেই। ঝালকাঠির সিভিল সার্জন ডা. শ্যামল কৃষ্ণ হাওলাদার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

নীলফামারীতে ৫ ব্যাংককর্তা

প্রতিনিধি, নীলফামারী

নীলফামারীতে এবার ৫ জন ব্যাংক কর্মকর্তার শরীরে করোনাভাইরাস শনাক্ত হয়েছে। স্বাস্থ্য বিভাগের তথ্য মতে এ নিয়ে জেলায় করোনা রোগীর সংখ্যা দাঁড়াল ২১ জন ও স্থানীয়মতে ২৩ জনে। গত শনিবার রাতে জেলা সিভিল সার্জন ডা. রনজিৎ কুমার বর্মন নতুন করে আবারও পাঁচজন ব্যাংক কর্মকর্তা আক্রান্তের বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, দিনাজপুর এম আব্দুর রহিম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের করোনা পরীক্ষা কেন্দ্র হতে নীলফামারী জেলায় ৫ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে বলে রিপোর্ট পাওয়া গেছে। এছাড়াও জেলায় গত ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে ৮৬ জনসহ হোম কোয়ারেন্টিনে রয়েছেন এক হাজার ১৮৯ জন।

ঠাকুরগাঁওয়ে আরও ৩

প্রতিনিধি, ঠাকুরগাঁও

ঠাকুরগাঁওয়ে করোনায় গত রোববার আরও তিনজন আক্রান্ত হয়েছে। এ নিয়ে করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা ১৯ জন। নতুন আক্রান্তরা হলেন হরিপুরে ২ জন ও বালিয়াডাঙ্গী উপজেলায় ১ জন।

এছাড়া ২৪ ঘণ্টায় জেলা থেকে ৩ জনের নতুন নমুনা পাঠিয়েছে স্বাস্থ্য বিভাগ। এ বিষয়ে ঠাকুরগাঁও সিভিল সার্জন ডা. মো. মাহফুজার রহমান সরকার আক্রান্তের সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, আজ নতুন করে আরও তিনজন আক্রান্ত হয়েছে। এ ব্যাপারে আমরা সতর্ক অবস্থানে আছি। আমরা নিয়মিত নমুনা সংগ্রহ করছি।

হোমনায় এনজিও কর্তা

প্রতিনিধি, হোমনা

কুমিল্লার হোমনায় এক এনজিও কর্মকর্তার শরীরে করোনাভাইরাস ধরা পরেছে। গত শনিবার রিপোর্ট হাতে পেয়ে হোমনা উপজেলা স্বাস্থ্য ও প.প কর্মকর্তা ডাক্তার মো. সালাম সিকদার সাংবাদিকদের এ তথ্য নিশ্চিত করেন। মাসুদ রানা নামের ওই ব্র্যাক কর্মকর্তা উপজেলার দুলালপুর ক্ষুদ্র ঋণ শাখায় কর্মরত ।

উপজেলা স্বাস্থ্য ও প.প. কর্মকর্তা ডাক্তার মোহাম্মদ আব্দুছ ছালাম সিকদার দৈনিক সংবাদকে বলেন, ওই ব্র্যাক কর্মকর্তার সর্দি, কাশি, গলাব্যথা ও শ^াস কষ্ট থাকায় করোনা সন্দেহে তার নমুনা সংগ্রহ করি। পরে পরীক্ষার জন্য ঢাকায় পাঠানো হলে শনিবার তার রিপোর্ট পজিটিভ আসে। তার অবস্থা বেশি সঙ্কটাপন্ন হওয়ায় তাকে ঢাকায় রেফার করা হয়েছে।