• banlag
  • newspaper-active
  • epaper

মঙ্গলবার, ১৯ নভেম্বর ২০১৯, ৪ অগ্রাহায়ণ ১৪২৬, ২১ রবিউল আওয়াল ১৪৪১

মাদ্রাসা ছাত্রকে পিটিয়ে হত্যা শিক্ষক পলাতক

সংবাদ :
  • জেলা বার্তা পরিবেশক, মাদারীপুর

| ঢাকা , শুক্রবার, ০৮ নভেম্বর ২০১৯

মাদারীপুরে ২য় শ্রেণীর এক মাদরাসা ছাত্রকে পিটিয়ে হত্যার অভিযোগ উঠেছে শিক্ষক ইউসুফ আলীর বিরুদ্ধে। গত বুধবার সন্ধ্যায় সদর উপজেলার গাছবাড়িয়া কওমী মাদরাসায় এ ঘটনা ঘটে। ঘটনার পর থেকে পলাতক রয়েছে অভিযুক্ত ওই শিক্ষক। এ ঘটনার দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দাবি করেছেন স্বজন ও এলাকাবাসী।

নিহত শিক্ষার্থীর চাচি রোকেয়া বেগম বলেন, পড়ালেখায় অমনযোগী হওয়ায় ৩রা নভেম্বর (রোববার) জোড়া বেত দিয়ে আসিফকে পিটুনি দেয় মাদারীপুর সদর উপজেলার গাঠবাড়িয়া কওমি মাদরাসার শিক্ষক ইউসুফ আলী। পরে ভয়ে আবাসিক হোস্টেল থেকে ওইদিনই পালিয়ে আসে আসিফ। পরিবারের লোকজন মঙ্গলবার বিকেলে আসিফকে বুঝিয়ে শুনিয়ে পুনরায় মাদরাসায় দিয়ে আসে। এরপরে মাদরাসার শিক্ষক ইউসুফ আলী বুধবার বিকেলেও একই কারণে বেত দিয়ে বেদম মারধর করলে আসিফ অচেতন হয়ে মাটিতে পড়ে। নিহতের বাবা আনোয়ার মাতুব্বর বলেন, আমার ছেলেকে মানুষ করার জন্য মাদরাসায় পাঠিয়েছি। কিন্তু হুজুর আমার ছেলেকে মেরে ফেলে মুখে বিষ ঢেলে হাসপাতালে ভর্তি করে পালিয়ে যায়। আমি আমার ছেলে হত্যার বিচার চাই। মাদারীপুর সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সওগাতুল আলম বলেন, খবর পেয়ে আমরা হাসপাতালে পুলিশ পাঠিয়েছি এবং ওই মাদরাসায় পুলিশের একটি দল পাঠানো হয়েছে। আমরা এ ঘটনায় নানা ধরণের অভিযোগ মৌখিক শুনতেছি। তবে প্রাথমিক ভাবে জানতে পেরেছি, শিক্ষকের বেতর আঘাতে ওই ছাত্র অভিমান করে বিষাক্ত কিছু পান করে। পরে হাসপাতালে আনার পরেই তার মৃত্যু হয়। এদিকে সদর মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা জানিয়েছেন এ ঘটনায় জিজ্ঞাসাবাদের জন্য মাদরাসার অপর শিক্ষক আবুল হাসান খানকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য নিয়ে এসেছি। পাশাপাশি বিষয়টি তদন্ত করে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।