• banlag
  • newspaper-active
  • epaper

বুধবার, ১৯ ফেব্রুয়ারী ২০২০, ৬ ফল্গুন ১৪২৬, ২৪ জমাদিউল সানি ১৪৪১

দুই জেলায় ছাই ৫ দোকান-ঘর

সংবাদ :
  • সংবাদ জাতীয় ডেস্ক

| ঢাকা , শুক্রবার, ১৪ ফেব্রুয়ারী ২০২০

সিরাজগঞ্জর এনায়েতপুর এবং ঢাকার দোহারে গত বুধবার অগ্নিকাণ্ডের ঘটানায় ৫ দোকান ও বসতঘর ছাই হয়ে গেছে। বিস্তারিত প্রতিনিধিদের পাঠানো খবরে-

সিরাজগঞ্জ

সিরাজগঞ্জের এনায়েতপুর থানার খুকনীতে একটি আকষ্মিক অগ্নিকা-ের ঘটনায় এক দরিদ্র তাঁত কাপড় ব্যবসায়ী পরিবার নিঃশ্ব হয়ে গেছে। তার থাকার ২টি ঘর ও ঘরে থাকা বিক্রির জন্য রাখা কাপড়, নগদ অর্থ, গহনা সহ প্রায় ৮ লাখ টাকার যাবতীয় জিনিসিপত্র ভস্মিভূত হয়েছে। ভুক্তভোগী সিরাজুল ইসলামের অভিযোগ, প্রতিবেশী হাশেম হাজী লোকজন দিয়ে পরিকল্পিতভাবে আমাকে উচ্ছেদ করতেই এই অগ্নিকা-ের ঘটনা ঘটিয়েছে। এ বিষয়ে তিনি থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করেছেন। এদিকে অভিযোগের প্রেক্ষিতে হাশেম হাজী জানান, সিরাজুল নিজেই ঘরে আগুন দিয়ে আমাদের ফাঁসানোর চেষ্টা করছে। বিষয়টি নিয়ে এনায়েতপুর থানার ওসি মোল্লা মাসুদ পারভেজ জানান, ঘটনাটি মর্মান্তিক। প্রাথমিকভাবে তদন্ত শেষে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নেয়া হবে।

পুলিশ ও স্থানীয়রা জানায়, গত সোমবার রাত ১০টার দিকে খুকনী রহমত খোলা এলাকার বাসিন্দা সাবেক ইউপি সদস্য সিরাজুল ইসলামের বাড়ির দক্ষিণ পাশের ঘরে হঠাৎ আগুন লাগলে ঘরে থাকা তার স্ত্রী রিনা খাতুন ৩ সন্তান নিয়ে চিৎকার দিয়ে ঘর থেকে বের হয়। তখন মুহূর্তের মধ্যেই আগুন ছড়িয়ে উত্তরের ঘরে ছড়িয়ে পড়ে। এ সময় ঘরে বিক্রির জন্য রাখা তাঁতের ২৪০ পিস শাড়ি, সুতা, নগদ ১ লাখ ১৭ হাজার টাকা, ১ ভরির মত গহনা, আসবাবপত্রসহ প্রায় ৮ লাখ টাকার জিনিস পত্র পুড়ে যায়। এরপর স্থানীয়দের আধা ঘণ্টার চেষ্টায় আগুন নিয়ন্ত্রণে আসে। এতে পুরোপুরি নিঃস্ব হয় পরিবারটি।

দোহার

ঢাকার দোহার উপজেলায় জয়পাড়া বাজারে অবস্থিত কাঠ পট্টি মার্কেটে আগুনে পুড়েছে পাঁচটি কাঠ ফার্নিচারের দোকান। দোকান মালিকদের দাবি পাঁচটি দোকানে প্রায় ত্রিশ লাখ টাকার মালামাল ও স্থাপনা পুঁড়ে অঙ্গার। আগুনে পুড়ে ভষ্মিভূত দোকানগুলো হল মুক্তি ফার্নিচার, বাংলাদেশ ফার্নিচার হাউস, উত্তম ফার্নিচার, সত্য ফার্নিচার ও মোস্তফা ফার্নিচার।

জয়পাড়া বনিক সমিতির সাধারণ-সম্পাদক দেলোয়ার মাঝি জানান, বুধবার রাত ৪টার দিকে জয়পাড়া বাজারের কাঠ পট্টি মার্কেটের রাত্রিকালীন পাহাড়াদারদের ডাক-চিৎকারে আগুন লাগার সংবাদ পেয়ে সঙ্গে সঙ্গেই দোহার ফায়ার সার্ভিসে জানালে আ.মান্নানের নেতৃত্বে একদল অগ্নিনির্বাপক কর্মী ও বাজারের স্থানীয়রা প্রায় দুইঘণ্টার চেষ্টায় আগুন নিয়ন্ত্রণে আনেন। এ সময়ের মধ্যে কাঠ পট্টি মার্কেটে আমাদের দুইটি দোকান ঘর এবং মো. লালমদ্দিন বেপারীর দুইাট দোকান ঘরসহ আগুনে পুড়ে পাঁচটি কাঠ ফার্নিচারের দোকানের মালামাল ও স্থাপনা পুঁড়ে অঙ্গার হয়ে যায়। আগুনে পুড়ে প্রায় ত্রিশ লাখ টাকার ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে। এ বিষয়ে দোহার থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো.সাজ্জাদ হোসেন জানান, সংবাদ পেয়ে দ্রুত ফায়ার সার্ভিস কর্মীদের সঙ্গে নিয়ে টানা দুই ঘণ্টার পরিশ্রমে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনতে সক্ষম হই। আল্লাহর মেহেরবানীতে পাঁচটি দোকান ছাড়া বাজারের অন্যান্য ফার্নিচারের দোকানগুলো আগুনের হাত থেকে রক্ষা পেয়েছে। আগুনের সূত্রপাত বৈদ্যুতিক শর্টসার্কিট থাকাতে এ ঘটনা ঘটেছে।