• banlag
  • newspaper-active
  • epaper

মঙ্গলবার, ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২০, ১০ মহররম ১৪৪২, ১১ আশ্বিন ১৪২৭

ঠাকুরগাঁওয়ে অজ্ঞাত রোগে একই পরিবারের সাতজন হাসপাতালে

সংবাদ :
  • জেলা বার্তা পরিবেশক, ঠাকুরগাঁও

| ঢাকা , শুক্রবার, ০৬ মার্চ ২০২০

ঠাকুরগাঁওয়ের বালিয়াডাঙ্গীতে হঠাৎ করেই অসুস্থ হয়ে সাবেক ইউপি চেয়ারম্যানসহ তার পরিবারের সাত জন সদস্য হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন। গত মঙ্গলবার বিকেলে বালিয়াডাঙ্গী উপজেলার ভানোর ইউনিয়নের দূর্গাপুর গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। পরে বিকেল ৫টার সময় স্থানীয় পুলিশের সহযোগিতায় বালিয়াডাঙ্গী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের একটি মেডিকেল দল তাদের উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে আসে। এ নিয়ে আতঙ্কে আছেন স্থানীয়রা।

অসুস্থরা হলেন, জেলার বালিয়াডাঙ্গী উপজেলার ভানোর ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান অপূর্ব কুমার রায়, তার স্ত্রী মনজু রানী রায়, তার নাতি শুভ, যুবরাজ, প্রলয় মিথি ও বাড়ির কাজের লোক তৈল্য কুমার রায়। অসুস্থ ৭ জনই বর্তমানে বালিয়াডাঙ্গী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসাধীন। এদিকে সাবেক চেয়ারম্যানের বাড়ির তিনটি কুকুরও অসুস্থ হয়ে পড়েছে। ইতোমধ্যে দুটো কবুতর মারা গেছে। এ নিয়ে আতঙ্কে আছেন স্থানীয়রা। এর আগে ঘটনা জানার পর ওই বাড়িতে প্রবেশ করতে সাহস পায়নি কেউ। পরে পুলিশ ও মেডিকেল টিম ঘটনাস্থলে উপস্থিত হলে বাড়ির লোকজনকে উদ্ধার করা হয়।

স্থানীয়রা জানায়, সকাল থেকেই বাড়ির কুকুর দুটো অসুস্থ। স্থানীয় চিকিৎসক ডেকে কুকুর দুটোকে ইনজেকশন দেয়া হয়েছে। দুপুরে খাওয়ার দাওয়ার পর বাড়ির লোকজন একে একে অসুস্থ হতে শুরু করে। তবে কেন অসুস্থ হচ্ছে এর সঠিক কারণ কেউ জানাতে পারেনি।

বালিয়াডাঙ্গী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের আবাসিক মেডিকেল অফিসার ডা. আবু সাদাৎ রুপক জানান, খাবার পানিতে অথবা খাবারে চেতনানাশক মিশিয়ে খাওয়ানোর কারণে এমনটা হতে পারে। সবারকে চিকিৎসা প্রদান করা হয়েছে। আশা করছি খুব শীঘ্রই শঙ্কামুক্ত হবে বলেও জানান এ চিকিৎসক।

বালিয়াডাঙ্গী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. আবুল কাশেম জানান, ঘটনাস্থলে মেডিকেল টিম পাঠিয়ে এ্যাম্বুলেন্স রোগীদের হাসপাতালে নিয়ে আসা হয়েছে। বর্তমানে রোগীদের অবস্থা তুলনামূলক একটু ভাল। এ বিষয়ে বালিয়াডাঙ্গী থানার এসআই ইশাহাক আলী বলেন, পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে। মেডিকেল টিম ডেকে অসুস্থ রোগীদের হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। কেন এই ঘটনা তা তদন্ত করা হচ্ছে। তবে এখনও বালিয়াডাঙ্গী থানায় এ ব্যাপারে কোন অভিযোগ করা হয়নি।