• banlag
  • newspaper-active
  • epaper

মঙ্গলবার, ২৭ অক্টোবর ২০২০, ১১ কার্তিক ১৪২৭, ৯ রবিউল ‍আউয়াল ১৪৪২

কেশবপুরে রাস্তা নিয়ে সংঘর্ষ : আহত ৮

সংবাদ :
  • প্রতিনিধি, কেশবপুর (যশোর)

| ঢাকা , শুক্রবার, ২৫ অক্টোবর ২০১৯

যশোরের কেশবপুরে বরনডালি গ্রামে রাস্তা বন্ধ করে পাচিল নির্মাণকে কেন্দ্র করে প্রতিপক্ষের সাথে দু’দফা সংঘর্ষে ৬ জন আহত হয়েছে। এরই জের ধরে অপরপক্ষ রাস্তা বন্ধ করে দিলে ২টি পরিবার ৪ দিন ধরে অবরুদ্ধ হয়ে পড়ে। এ ঘটনায় থানায় অভিযোগ হয়েছে।

অভিযোগ সূত্রে জানা গেছে, উপজেলার বরনডালি গ্রামের দফাদার পাড়ায় ৬০-৭০ ঘর লোক বসবাস করে। পাড়ার ভেতর দিয়ে একটি রাস্তা বরনডালি পশ্চিম মাঠের বিল ও সরসকাটি বাজারে গিয়ে মিশেছে। এ রাস্তা দিয়ে ওই পাড়ার জনগণ চলাচল করে থাকে। গত ১৯ অক্টোবর রাস্তাটি দখল করে পাকা প্রাচীর নির্মাণ করতে যায় একই গ্রামের কামরুল গাজী, হানেফ গাজী ও আয়নাল গাজী। এতে জনগণের চলাচলে বিঘ্নে সৃষ্টি হওয়ায় আরিফুজ্জামান সরদার বাধা দিলে সংঘর্ষের সৃষ্টি হয়। এতে আরিফুজ্জামান, আলাউদ্দীন, সালাউদ্দীন, মজনু, সাইফুল্লা, হাফিজু রহমান আহত হয়। এদের মধ্যে গুরুতর আহত আরিফুজ্জামানকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়। এ ঘটনায় ওইদিন সন্ধ্যায় আরিফুজ্জামান বাদি হয়ে প্রতিপক্ষ আমছার গাজীগং, শামছুর রহমান, কামরুল ইসলাম, ইসরাফিলসহ ১০ জনের নাম উল্লেখ করে থানায় একটি অভিযোগপত্র দাখিল করেন।

এ ব্যাপারে প্রতিপক্ষের শামছুর রহমান বলেন, স্থানীয় মেম্বার সাগরিকার স্বামী মাস্টার মনিরুল ইসলাম রাস্তার সীমানা নির্মাণ করে দেয়। সে মোতাবেক পাচিল দেয়া হচ্ছিল। এ সময় আরিফুজ্জামান লোকজন এনে বাধা দিলে সংঘর্ষ হয়। এতে ইসরাফিল ও রাসেল আহত হয়। সন্ধ্যায় সরসকাটি বাজারে এরশাদ গাজীকে তারা একা পেয়ে মারপিট করে। পরেরদিন তাদের বাড়ির পাশের রাস্তা বন্ধ করে দিলে ৪ দিন ধরে অবরুদ্ধ হয়ে পড়ে আয়নাল ও সামাদ গাজীর পরিবার। কেশবপুর থানার দারগা মোশারফ হোসেন বলেন, অভিযোগ পেয়ে ২৩ অক্টোবর ঘটনাস্থল পরিদর্শন করা হয়েছে।