• banlag
  • newspaper-active
  • epaper

শুক্রবার, ০২ অক্টোবর ২০২০, ১৪ সফর ১৪৪২, ১৭ আশ্বিন ১৪২৭

খোকসা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে

আইসোলেশন ওয়ার্ড আছে নেই চিকিৎসা উপকরণ!

সংবাদ :
  • প্রতিনিধি, খোকসা (কুষ্টিয়া)

| ঢাকা , বুধবার, ২৫ মার্চ ২০২০

image

খোকসা (কুষ্টিয়া) : প্রবাসীর বাড়িতে সতর্কতার অংশ হিসেবে টানিয়ে দেয়া লাল পতাকা -সংবাদ

কুষ্টিয়ার খোকসা উপজেলা বিদেশ ফেরত ৬৪ জনের মধ্যে ২৮ জন প্রবাসীকে হোম কোয়ারেন্টিনে রাখা হয়েছে। হোম কোয়ারেন্টিনের আইন লঙ্ঘন করায় ৪ জন প্রবাসীকে জরিমানা করেছে ভ্রাম্যমাণ আদালত। খোকসা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ১০ শয্যার আইসোলেশন ওয়ার্ড তৈরি করা হলেও নেই পরীক্ষা নিরীক্ষা করে রোগ নির্ণয়ের ব্যবস্থাসহ চিকিৎসা উপকরণ। নেই চিকিৎসকদের নিরাপত্তা পোশাক। উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স সূত্রে জানা যায়, করোনা আক্রান্তদের জরুরি চিকিৎসার জন্য ইতোমধ্যেই খোকসা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ১০ শয্যার আইসোলেশন ওয়ার্ড প্রস্তুত করা হয়েছে। তবে রোগ নির্ণয়ের কিট, রোগীদের জন্য পর্যাপ্ত অক্সিজেন, আইসোলেশন ওয়ার্ডের রোগীদের জন্য কোন প্রকার অতিরিক্ত ওষুধের বরাদ্দ দেয়া হয়নি। চিকিৎসক নার্সদের নিরাপত্তা পোশাক সরবরাহ করা হয়নি বলে একাধিক সূত্র জানায়। উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের জরুরি ও বর্হির বিভাগে কর্মরত চিকিৎসকরা সব ধরনের রোগীর চিকিসৎসা দিচ্ছে। তবে সেখানে কর্তব্যরত চিকিৎসকদের ব্যক্তিগত সুরক্ষার পোশাকসহ কোন প্রকার সুরক্ষার ব্যবস্থা নেই। একই হাল সাধারণ ওয়ার্ডে কর্মরত নার্সদের ক্ষেত্রেও। থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মজিবর রহমান জানান, সদ্য দেশে ফেরা প্রবাসীদের বাড়িতে লাল পতাকা ও স্ট্রিকার লাগিয়ে দেয়া হচ্ছে। মুহূর্র্তে সরেজমিন ও ফোনে তাদের অবস্থান তদারকি করা হচ্ছে। বিপদকালীন সময়ে যেসব প্রবাসীরা দেশে ফিরেছেন তাদের হোম কোয়ারেন্টিনে রাখার জন্য পুলিশ জনপ্রতিনিধি ও প্রশাসনিক কর্মকর্তারা সার্বক্ষণিক কাজ করে চলেছে। উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. কামরুজ্জামান সোহেল বলেন, এ উপজেলায় ২৩ মার্চ পর্যন্ত করোনা আক্রান্ত রোগী পাওয়া যায়নি। সদ্য দেশে ফেরা প্রবাসীদের হোম কোয়ারেন্টিনে রাখা হয়েছে। স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ১০ শয্যার আইসোলেশন ওয়ার্ড প্রস্তুত করা হয়েছে। তবে ডাক্তার ও নার্সদের সুরক্ষা পোশাক না থাকলেও নিজেদের এপ্রন ও হ্যান্ড গ্লবস, মাক্স ব্যবহার করেই তারা নিজেদের সুরক্ষার চেষ্টা করছেন।