• banlag
  • newspaper-active
  • epaper

শুক্রবার, ২২ নভেম্বর ২০১৯, ৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৬, ২৪ রবিউল আওয়াল ১৪৪১

৩২ মাসের মধ্যে সর্বনিম্নে ডিএসইর সূচক

আতঙ্কে বিনিয়োগকারীরা

সংবাদ :
  • অর্থনৈতিক বার্তা পরিবেশক

| ঢাকা , বৃহস্পতিবার, ১২ সেপ্টেম্বর ২০১৯

image

আবারও বড় পতন দেখা দিয়েছে শেয়ারবাজারে। গতকাল ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জের (ডিএসই) প্রধান সূচক ৭৬ পয়েন্ট কমে ২ বছর সাড়ে আট মাস আগের অবস্থানে নেমে গেছে।এর ফলে শেয়ারবাজারের বিনিয়োগকারীদের মধ্যে আতঙ্ক দেখা দিয়েছে। এছাড়াও সরকারি করপোরেশনের উদ্বৃত্ত অর্থ রাষ্ট্রীয় কোষাগারে নেয়ার সিদ্ধান্তের কারণে আরও নতুন আতঙ্ক সৃষ্টি হয়েছে। এর ফলে আগামীতে শেয়ারবাজারে কী হবে? কোন দিকে যাবে দেশের শেয়ারবাজার? এসব নিয়ে আতঙ্কে রয়েছেন বিনিয়োগকারীরা ।এদিন ডিএসইর সঙ্গে চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জেরও (সিএসই) সব সূচক কমেছে। একই সঙ্গে কমেছে লেনদেনে অংশ নেয়া বেশিরভাগ প্রতিষ্ঠানের শেয়ার ও ইউনিট দর। তবে এদিন সিএসইতে টাকার পরিমাণে লেনদেন কমলেও ডিএসইতে লেনদেন বেড়েছে। ডিএসই ও সিএসই সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

বাজার বিশ্লেষণে দেখা গেছে, গতকাল ডিএসইর প্রধান সূচক ডিএসইএক্স ৭৬ পয়েন্ট কমে দাঁড়িয়েছে ৪ হাজার ৯৩৩ পয়েন্টে। ডিএসইর এই সূচকটি ২ বছর ৮ মাস ২০ দিন বা ৬৬৭ কার্যদিবসের মধ্যে সর্বনিম্নে অবস্থান করছে। এর আগে ২০১৬ সালের ২১ ডিসেম্বর ডিএসইএক্স সূচকের অবস্থান এদিন থেকে আরও নিম্নে ছিল। ওই দিন ডিএসইএক্স সূচক ছিল ৪ হাজার ৯২৪ পয়েন্টে। গতকাল ডিএসইর অপর দুই সূচকের মধ্যে শরিয়াহ সূচক ১৪ পয়েন্ট ও ডিএসই-৩০ সূচক ২২ পয়েন্ট কমে দাঁড়িয়েছে যথাক্রমে ১১৫৫ ও ১৭৩৬ পয়েন্টে।

গতকাল ডিএসইতে ৫০২ কোটি ৪২ লাখ টাকার শেয়ার ও ইউনিট লেনদেন হয়েছে। আগের দিন লেনদেন হয়েছিল ৪০৭ কোটি ৩ লাখ টাকার। সেই হিসেবে এদিন ডিএসইতে লেনদেন বেড়েছে ৯৫ কোটি ৩৯ লাখ টাকা। এদিন ডিএসইতে ৩৫৩টি প্রতিষ্ঠান শেয়ার ও ইউনিট লেনদেনে অংশ নিয়েছে। এসব প্রতিষ্ঠানের মধ্যে ৩৭টির বা ১০ শতাংশের শেয়ার ও ইউনিট দর বেড়েছে। দর কমেছে ২৮৮টির বা ৮২ শতাংশের এবং ২৮টি বা ৮ শতাংশ প্রতিষ্ঠানের শেয়ার ও ইউনিট দর অপরিবর্তিত রয়েছে।

এদিন ডিএসইতে টাকার অঙ্কে সবচেয়ে বেশি লেনদেন হয়েছে ন্যাশনাল টিউবসের। এদিন কোম্পানিটির ২৬ কোটি ৮৮ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছে। লেনদেনে দ্বিতীয় স্থানে রয়েছে জেএমআই সিরিঞ্জের ২৪ কোটি ৮৯ লাখ টাকার এবং ২৩ কোটি ৪৬ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেনের মাধ্যমে তৃতীয় স্থানে রয়েছে বিকন ফার্মা।

ডিএসইর লেনদেনে শীর্ষে থাকা অন্য কোম্পানিগুলোর মধ্যে রয়েছে : মুন্নু সিরামিক, স্টাইলক্রাফট, মুন্নু জুট স্টাফলার্স, ভিএফএস থ্রেড ডাইং, ওয়াটা কেমিক্যাল, আইপিডিসি এবং স্কয়ার ফার্মা।

ডিএসইতে বুধবার দরপতনের তালিকার শীর্ষ স্থানে ছিল এমএল ডাইং। কোম্পানিটির শেয়ার দর আগের দিনের চেয়ে ৯ দশমিক ৫৬ শতাংশ বা ১ টাকা ৮০ পয়সা কমেছে। শেয়ারটির দর সর্বশেষ ২৩ টাকা ৩০ পয়সায় লেনদেন হয়েছে। এদিন কোম্পানিটি ৩৫৪ বারে ১ লাখ ৯৫ হাজার ৯৭৫টি শেয়ার লেনদেন হয়েছে। যার বাজার মূল্য ৪৫ লাখ ৫৬ হাজার টাকা। এ তালিকায় দ্বিতীয় স্থানে রয়েছে ভিএফএস থ্রেড ডাইং। কোম্পানির শেয়ার দর আগের দিনের চেয়ে ৯ দশমিক ১৫ শতাংশ বা ২ টাকা ৬০ পয়সা কমেছে। সর্বশেষ ২৫ টাকা ৮০ পয়সা দরে লেনদেন হয়েছে এ কোম্পানিটির শেয়ার। এদিন কোম্পানিটি ২ হাজার ৫৮৩ বারে ৪৩ লাখ ৩৫ হাজার ৭৯৩টি শেয়ার লেনদেন হয়েছে। যার বাজার মূল্য ১১ কোটি ২৯ লাখ ৩৯ হাজার টাকা। এ তালিকার তৃতীয় স্থানে রয়েছে পপুলার লাইফ ইন্স্যুরেন্স কোম্পানি লিমিটেড। কোম্পানির শেয়ার দর আগের দিনের চেয়ে ৮ দশমিক ৩৯ শতাংশ বা ৭ টাকা ৭০ পয়সা কমেছে। শেয়ার সর্বশেষ ৮৪ টাকা ১০ পয়সা দরে লেনদেন হয়। এদিন কোম্পানিটি ২৭ বারে ২৯ হাজার ৮৫টি শেয়ার লেনদেন করে। যার বাজার মূল্য ২ লাখ ৫৩ হাজার টাকা।

দরপতনের তালিকায় থাকা অন্য কোম্পানিগুলো হচ্ছে- এসইএমএল আইবিবিএল শরিয়া ফান্ড, গ্লোবাল ইন্স্যুরেন্স, আইসিবি থার্ড এনআরবি মিউচুয়াল ফান্ড-১, ইউনাইটেড ইন্স্যুরেন্স, এরামিট সিমেন্ট লিমিটেড, সি অ্যান্ড এ টেক্সটাইলস ও এসইএমএল লেকচার ইক্যুইটি ম্যানেজমেন্ট ফান্ড।

অপর শেয়ারবাজার চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জের (সিএসই) সার্বিক সূচক সিএএসপিআই গতকাল ২৩৫ পয়েন্ট কমে দাঁড়িয়েছে ১৪ হাজার ৯৯৩ পয়েন্টে। এদিন সিএসইতে হাত বদল হওয়া ২৬১টি প্রতিষ্ঠানের মধ্যে শেয়ার দর বেড়েছে ৩৬টির, কমেছে ২০৮টির এবং অপরিবর্তিত রয়েছে ১৭টির শেয়ার দর। গতকাল সিএসইতে ১৪ কোটি ৫৭ লাখ টাকার শেয়ার ও ইউনিট লেনদেন হয়েছে। আগের কার্যদিবসে লেনদেন হয়েছিল ৬৯ কোটি ৪৫ লাখ টাকা। সেই হিসেবে সিএসইতে এদিন লেনদেন কমেছে ৫৪ কোটি ৮৮ লাখ টাকা।