• banlag
  • newspaper-active
  • epaper

মঙ্গলবার, ১৪ জুলাই ২০২০, ৩০ আষাঢ় ১৪২৭, ২২ জিলকদ ১৪৪১

সূচকের পতনে সপ্তাহ শুরু

সংবাদ :
  • অর্থনৈতিক বার্তা পরিবেশক

| ঢাকা , সোমবার, ১৩ মে ২০১৯

image

গতকাল সপ্তাহের প্রথম কার্যদিবসে ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জ (ডিএসই) ও চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জে (সিএসই) সূচকের পতনে শেষ হয়েছে লেনদেন কার্যক্রম। এদিন ডিএসইর প্রধান সূচক ডিএসইএক্স কমেছে এক পয়েন্ট। একই সঙ্গে ডিএসইতে এদিন কমেছে লেনদেনও। অপর বাজার চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জের প্রধান সূচক সিএসসিএক্স কমেছে ৮ পয়েন্ট। তবে আগের কার্যদিবসের তুলনায় লেনদেনের পরিমাণ সামান্য বেড়েছে সিএসইতে।

বাজার বিশ্লেষণে দেখা যায়, এদিন ডিএসইতে লেনদেন হয়েছে ৩৫৮ কোটি ১৬ লাখ টাকার শেয়ার ও মিউচ্যুয়াল ফান্ড। গত কার্যদিবসে লেনদেন হয়েছিল ৩৭৬ কোটি ৬২ লাখ টাকা। সেই হিসেবে গতকাল লেনদেনের পরিমাণ কমেছে ১৮ কোটি ৪৬ লাখ টাকা। ডিএসইএক্স সূচকটি এক পয়েন্ট কমে দাঁড়ায় পাঁচ হাজার ২৭৩ পয়েন্টে। ডিএসই-৩০ সূচক ৪ পয়েন্ট কমে অবস্থান করছে এক হাজার ৮৪৬ পয়েন্টে এবং ডিএসই শরিয়াহ সূচক এক পয়েন্ট কমে অবস্থান করছে এক হাজার ২১৯ পয়েন্টে।

লেনদেন শেষে ডিএসইতে লেনদেন হওয়া প্রতিষ্ঠানগুলোর মধ্যে দাম বেড়েছে ১৫৩টির, কমেছে ১৫০ এবং অপরিবর্তিত রয়েছে ৪৪টি কোম্পানির শেয়ারের দাম।

টাকার অংকে এদিন ডিএসইতে সবচেয়ে বেশি লেনদেন হয়েছে ফরচুন সুজের শেয়ার। কোম্পানিটির ২০ কোটি ১৫ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছে। লেনদেনে দ্বিতীয় স্থানে থাকা বাংলাদেশ শিপিং করপোরেশনের ১৮ কোটি ৩৯ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছে এবং ১২ কোটি ৯২ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেনের মাধ্যমে তৃতীয় স্থানে রয়েছে পাওয়ার গ্রিড। এছাড়াও দর বৃদ্ধির ভিত্তিতে ডিএসই’র শীর্ষ দশ কোম্পানির তালিকায় আছে- এস্কয়ার নিটিং, ওয়াইম্যাক্স, আইবিপি, বাংলাদেশ সাবমেরিন ক্যাবল, মুন্নু সিরামিকস, এলএইবিএল এবং এসএস স্টিল।

অপর বাজার চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জে লেনদেন হয়েছে ২২ কোটি ৮৫ লাখ টাকা। গত কার্যদিবসে লেনদেন হয়েছিল ২০ কোটি ৭ লাখ টাকার শেয়ার ও মিউচ্যুয়াল ফান্ডের ইউনিট। সেই হিসাবে এই বাজারে লেনদেন বেড়েছে ২ কোটি ৭৮ লাখ টাকার। লেনদেন শেষে চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জের (সিএসই) সাধারণ সূচক (সিএসইএক্স) ৮ পয়েন্ট কমে ৯ হাজার ৭৯২ পয়েন্টে, সিএসই-৩০ সূচক পাঁচ পয়েন্ট বেড়ে দাঁড়িয়েছে ১৪ হাজার ২৬৩ পয়েন্টে এবং সিএএসপিআই সূচক ১২ পয়েন্ট কমে ১৬ হাজার ১৭৩ পয়েন্টে অবস্থান করে। দাম বাড়ার ভিত্তিতে সিএসই’র শীর্ষ কোম্পানিগুলো হলো- জিবিবি পাওয়ার, অ্যাপোলো ইস্পাত, ওয়াইম্যাক্স, মোজাফফর হোসেন স্পিনিং, সায়হাম টেক্সটাইল, জিপিএইচ ইস্পাত, আরএন স্পিনিং, এমবিএল ফার্স্ট মিউচ্যুয়াল ফান্ড, ডেল্টা স্পিনিং এবং পাওয়ার গ্রিড।