• banlag
  • newspaper-active
  • epaper

রবিবার, ০৭ জুন ২০২০, ২৪ জৈষ্ঠ ১৪২৭, ১৪ শাওয়াল ১৪৪১

পতনের পরদিনই সূচকের উত্থান

    সংবাদ :
  • অর্থনৈতিক বার্তা পরিবেশক
  • | ঢাকা , বুধবার, ১১ মার্চ ২০২০

image

দেশে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত রোগী শনাক্ত হওয়ার পর আতঙ্কে গত সোমবার শেয়ারবাজারে বড় ধরনের ধস নামলেও পরের কার্যদিবস গতকাল বড় উত্থান হয়েছে। এদিন প্রধান শেয়ারবাজার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জ (ডিএসই) এবং অপর শেয়ারবাজার চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জে (সিএসই) সবকটি মূল্যসূচকের বড় উত্থান হয়েছে। তবে কমেছে লেনদেনের পরিমাণ।

বাজার বিশ্লেষণে দেখা যায়, গত সোমবার ডিএসইতে মাত্র দুটি প্রতিষ্ঠানের শেয়ার ও ইউনিট দাম বাড়ার তালিকায় নাম লেখায়। বিপরীতে দাম কমে ৩৫২টির। একটির দাম অপরিবর্তিত থাকে। এতে ডিএসইর প্রধান মূল্যসূচক ডিএসইএক্স আগের দিনের তুলনায় ২৭৯ পয়েন্ট কমে যায়। এমন ধসের পর গতকাল লেনদেনের শুরুতে শেয়ারবাজারে বড় উত্থানের আভাস পাওয়া যায়। লেনদেনের প্রথম ৫ মিনিটেই ডিএসইর প্রধান মূল্যসূচক ডিএসইএক্স ৪৬ পয়েন্ট বেড়ে যায়। লেনদেনে শেষ পর্যন্ত শেয়ারবাজারে উত্থানের ধারা অব্যাহত থাকে। ফলে দিনের লেনদেন শেষে ডিএসইর প্রধান মূল্যসূচক আগের দিনের তুলনায় ১৪৮ পয়েন্ট বেড়ে ৪ হাজার ১৫৬ হয়েছে। অপর দুই সূচকের মধ্যে ডিএসই-৩০ সূচক ৪৪ পয়েন্ট বেড়ে ১ হাজার ৩৯০ পয়েন্টে এবং ডিএসই শরিয়াহ্ ৩১ পয়েন্ট বেড়ে ৯৬০ পয়েন্টে দাঁড়িয়েছে।

বাজারটিতে দিনভর লেনদেনে অংশ নেয়া ৩২৩টি প্রতিষ্ঠানের শেয়ার ও ইউনিট দাম বাড়ার তালিকায় নাম লিখিয়েছে। বিপরীতে দাম কমেছে ১৫টির। আর ১৮টির দাম অপরিবর্তিত থাকে। প্রায় সবকটি প্রতিষ্ঠানের দাম বাড়ার দিনে ডিএসইতে কমেছে লেনদেনের পরিমাণ। দিনভর বাজারটিতে লেনদেন হয়েছে ৩২৮ কোটি ৩৩ লাখ টাকা। আগের দিন লেনদেন হয় ৪৯৯ কোটি ৩৫ লাখ টাকা। সে হিসেবে লেনদেন কমেছে ১৭১ কোটি ২ লাখ টাকা।

অপর শেয়ারবাজার চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জের (সিএসই) সার্বিক সূচক সিএএসপিআই ৩৪২ পয়েন্ট বেড়ে দাঁড়িয়েছে ১২ হাজার ৬৭১ পয়েন্টে। লেনদেন হয়েছে ১২ কোটি ৬৬ লাখ টাকা। লেনদেন অংশ নেয়া ২৪৩ প্রতিষ্ঠানের মধ্যে দাম বেড়েছে ১৮০টির, কমেছে ৪৯টির এবং অপরিবর্তিত রয়েছে ১৪টির।

ব্লক মার্কেট : গতকাল ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জের (ডিএসই) ব্লক মার্কেটে মোট ৯ কোম্পানির শেয়ার লেনদেন হয়েছে। কোম্পানিগুলোর মোট ১৭ লাখ ১৫ হাজার শেয়ার লেনদেন হয়েছে। যার আর্থিক মূল্য ১১ কোটি ৪৬ লাখ টাকা।

কোম্পানিগুলোর মধ্যে সবচেয়ে বেশি অর্থাৎ ৪ কোটি ৬৬ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছে স্কয়ার ফার্মাসিটিক্যালস লিমিটেডের। লাফার্জহোলসিম লিমিটেড ৩ কোটি ৩০ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেন করে তালিকার দ্বিতীয় স্থানে রয়েছে। তৃতীয় স্থানে থাকা ন্যাশনাল লাইফ ইন্স্যুরেন্স ১ কোটি ৯০ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছে। এছাড়া ব্লকে লেনদেন করা অন্য কোম্পানিগুলো হচ্ছে- ব্রাক ব্যাংক, আইডিএলসি, নাহি অ্যালুমিনিয়াম কম্পোজিট, নাভানা সিএনজি, সি পার্ল বীচ ও স্ট্যান্ডার্ড ইন্স্যুরেন্স লিমিটেড।