• banlag
  • newspaper-active
  • epaper

সোমবার, ২৩ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ৮ আশ্বিন ১৪২৬, ২৩ মহররম ১৪৪১

দ্রুত বাড়ছে কৃষকের ব্যাংক অ্যাকাউন্ট

মোট অ্যাকাউন্ট ১ কোটি ৯৪ লাখ

সংবাদ :
  • অর্থনৈতিক বার্তা পরিবেশক

| ঢাকা , বৃহস্পতিবার, ১২ সেপ্টেম্বর ২০১৯

দ্রুত বাড়ছে কৃষকের ব্যাংক অ্যাকাউন্ট। আর্থিক অন্তর্ভুক্তি কর্মসূচির আওতায় বাংলাদেশে কার্যরত সব তফসিলি ব্যাংকের বিভিন্ন খাতে সর্বমোট ১ কোটি ৯৪ লাখ ৯৮ হাজার ৪৫টি ব্যাংক এসব হিসাব খোলা হয়েছে। চলতি বছরের (২০১৯) জুন শেষে বিশেষ সুবিধাযুক্ত এই হিসবাগুলোর মধ্যে ৫১ শতাংশ হিসাব কৃষকদের যার সংখ্যা ১ কোটি ৩৬ হাজার ৯০৭টি। বাংলাদেশ ব্যাংকের সর্বশেষ তথ্য অনুযায়ী, হিসাবগুলোতে জমার পরিমাণ মোট ১ হাজার ৯৩০ কোটি ১৯ লাখ টাকা।

আর্থিক অন্তর্ভুক্তি কর্মসূচিতে ব্যাংক হিসাব খোলা কার্যক্রমের সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ অংশ হচ্ছে কৃষকদের অন্তর্ভুক্তি। কৃষি কর্মকান্ডে সরকারি সহায়তার অংশ হিসেবে সরকারের বিভিন্ন ভর্তুকিসহ অন্যসব ব্যাংকিং সেবা প্রদানের উদ্দেশ্যে কৃষকদের হিসাব খোলার উদ্যোগ। বাংলাদেশ ব্যাংকের নিজস্ব ২০০ কোটি টাকার তহবিল থেকে কৃষকদের পুনঃঅর্থায়ন করা হয়। এর মধ্যে ১০ টাকায় খোলা কৃষকদের ৪৪ হাজার ৪৫৮টি হিসাবের মাধ্যমে উপকারভোগীদের মাঝে ১৪৪ কোটি ৭৬ লাখ টাকা ঋণ বিতরণ করা হয়েছে। কৃষকদের ১০ টাকায় খোলা হিসাব কার্যক্রমে ২০১৮ সালের জুন পর্যন্ত মোট হিসাব সংখ্যা ছিল প্রায় ৯২ লাখ ১৭ হাজার। এ বছরের (২০১৯) জুনে এসে কৃষকের ১০ টাকার হিসাব বৃদ্ধি পেয়েছে প্রায় ৮ লাখ ১৯ হাজার। এক বছরে বৃদ্ধির হার ৮.৮৯ শতাংশ। তবে আগের তিন মাসের (জানুয়ারি-মার্চ) তুলনায় চলতি ত্রৈমাসিকে হিসাব সংখ্যা বৃদ্ধি পেয়েছে ০.৪৭ শতাংশ। এসব হিসাবে মোট পুঞ্জীভূত জমার পরিমাণ ৩১৮ কোটি ৬৪ লাখ টাকা। আর্থিক অন্তর্ভুক্তি কর্মসূচির আওতায় কৃষকের খোলা ব্যাংক হিসাব ব্যতীত অন্যসব বিভিন্ন শ্রেণীর হিসাব সংখ্যা মোট হিসাবের ৪৯ শতাংশ। সরকারি বিভিন্ন কর্মসূচির আওতায় বিভিন্ন ভাতা ও বেতন প্রদান ছাড়াও আর্থিক সেবার আওতা বৃদ্ধির জন্য এ সব হিসাব খোলা হয়েছে। জুন শেষে কৃষকের হিসাব ব্যতীত অন্যসব বিভিন্ন খাতে খোলা মোট পুঞ্জীভূত হিসাব সংখ্যা ৯৪ লাখ ৬১ হাজার ১৩৮টি। আলোচ্য সময়ে (এপ্রিল-জুন) বিশেষ সুবিধাযুক্ত এই হিসাবগুলোর মধ্যে ৫০ হাজার ৯১৩টি হিসাবে বৈদেশিক রেমিট্যান্স জমা হয়েছে। এসব হিসাবে জমা মোট রেমিট্যান্সের পরিমাণ ২২৫ কোটি ৮৬ লাখ টাকা।